হবিগঞ্জে পাওনা টাকা নিয়ে বাকবিতণ্ডা, ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

হবিগঞ্জে পাওনা টাকা নিয়ে বাকবিতণ্ডা, ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ভাদৈ গ্রামে পাওনা টাকা নিয়ে বাকবিতণ্ডায় ছুরিকাঘাতে আহাম্মদ আলী স্বপন (২০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।
শুক্রবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেতৈয়া গ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
নিহত স্বপন অপরাধ বিচিত্রা’র হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি জমির আলীর ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাইনুল হাসান (২০) এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। সে ভাদৈ গ্রামের আব্দুল আলীমের ছেলে।
পুলিশ জানায়, আটককৃত মাইনুল হাসানের কাছে ১ হাজার টাকা পাওনা ছিল নিহত আহাম্মদ আলী স্বপনের। বৃহস্পতিবার রাতে পশ্চিম ভাদৈ সড়কে পাওনা টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়‌। এক পর্যায়ে মাইনুল উত্তেজিত হয়ে তার সহযোগীদের নিয়ে স্বপনকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে।
এসময় আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। পরে ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত সাড়ে ৯টায় ভাদৈ এলাকায় প্রথম জানাজা ও তেতৈয়া গ্রামে ২য় জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাসুক আলী জানান, ঘাতক মাইনুল ভাদৈ এলাকায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তাকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার মাইনুলকে আদালতে পাঠানো হবে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com