স্থায়ী ঠিকানা নেই, সেনাবাহিনীর সৈনিক পদে প্রথম হয়েও স্বপ্নভঙ্গ

স্থায়ী ঠিকানা নেই, সেনাবাহিনীর সৈনিক পদে প্রথম হয়েও স্বপ্নভঙ্গ

ইব্রাহিম।

শারীরিক কসরত, মেডিকেল, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় প্রথম হয়েও সেনাবাহিনীতে প্রবেশে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে স্থায়ী ঠিকানা। এমনটাই হয়েছে বাগেরহাটের ইব্রাহিমের বেলায়। এতে হতাশ হয়ে পড়েছে তার পরিবার। দাবি, বিশেষ বিবেচনায় হলেও চাকরি নিশ্চিত করা হোক ইব্রাহিমের। এদিকে স্থায়ী ঠিকানার বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।
ইব্রাহিমের স্বপ্ন ছিল সেনাবাহিনীতে যোগ দেবার। সেই সুপ্ত ইচ্ছা থেকেই সৈনিক পদে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেন খুলনা জাহানাবাদ ক্যান্টনমেন্টে। চলতি বছরের ১২ সেপ্টেম্বর সব পরীক্ষাতেই উত্তীর্ণ হন তিনি। শেষ পর্যন্ত থাকেন তালিকার শীর্ষে। কিন্তু ভূমিহীন হওয়ায়, অর্থাৎ স্থায়ী ঠিকানা না থাকায় চাকরি হয়নি তার।
বাগেরহাট শহরতলীর হরিণখানা গ্রামের খুপড়ি ঘরে বসবাস ইব্রাহিমের পরিবারের। লেখাপড়ার পাশাপাশি পরিবারকে আর্থিক যোগান দিতে করেন ইলেকট্রিক ও রাজমিস্ত্রির কাজ।
যমুনা টিভিকে ইব্রাহিম জানান, ছোটবেলায় বাবা ছেড়ে গেছে তাদের। বিভিন্ন জায়গায় থেকে অনেক কষ্টে তার মা লেখাপড়া শিখিয়েছেন। পরিবারের সবার প্রত্যাশা ছিল, ইব্রাহিমের চাকরি হলে ঘুচবে দুর্দিন। কিন্তু সে আশায় গুড়েবালি।
স্থানীয় সুশীল সমাজের লোকজনও বিশেষ বিবেচনায় ইব্রাহিমের চাকরি নিশ্চিত করে দেশসেবার সুযোগ দেয়ার দাবি জানাচ্ছেন। বিষয়টি বিশেষ বিবেচনার জন্য সেনাপ্রধানের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ইব্রাহিম ও তার পরিবার।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com