সুনামগঞ্জে ভাবির সাথে রাগ করে দেবরের আত্মহত্যা

সুনামগঞ্জে ভাবির সাথে রাগ করে দেবরের আত্মহত্যা

প্রতীকী ছবি।

সুনামগঞ্জে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের পরিবারের দাবি ভাবির সাথে অভিমান করে ওই যুবক আত্মহত্যার করেছে।
মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে দোয়ারাবাজার উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের আনোয়ারপুর গ্রামের নিজ বাড়ির পুকুরপাড় থেকে জাহাঙ্গীরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জাহাঙ্গীর আলম উপজেলার আনোয়ারপুর গ্রামের মৃত ফুল মিয়ার ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, ওই যুবক তার ভাবির সঙ্গে রাগ করে আত্মহত্যা করেছে। জাহাঙ্গীর সোমবার বিকেলে বড়ভাই আলমগীরের স্ত্রীর সঙ্গে কথাকাটাকাটিতে জড়িয়ে পরে। একপর্যায়ে তার ভাবী জাহাঙ্গীরের গায়ে হাত তোলেন। এরপর জাহাঙ্গীর রাগ করে বাড়ি থেকে চলে যায়। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত তার ফোনে বারবার চেষ্টা করেও কোনো সাড়া মেলেনি।
নিহতের মা ও তার স্ত্রী জাহানারা বেগম অনেক খোঁজাখুঁজির পর মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে জাহাঙ্গীরের ফোনে রিংটোন শুনতে পান। এরপর নিজ বাড়ির পুকুরপাড়ে আমগাছে গলায় কাপড় পেঁচানো অবস্থায় জাহাঙ্গীরের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় পরিবারের লোকজন।
নিহতের মা আছিয়া বেগম বলেন, জাহাঙ্গীর অভিমান করেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।
আরও পড়ুন- সংলাপের নামে ছাগল খোঁজা হচ্ছে: মির্জা আব্বাস
দোয়ারাবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মনিরুজ্জামান খান বলেন, জাহাঙ্গীর আলম ভাবির সঙ্গে অভিমান করেই আত্মহত্যা করেছে বলে তার পরিবারের লোকজন আমাদের জানিয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর মডেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
এনবি/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com