সিরিয়ায় জন্ম, যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা মেলেনি যুক্তরাজ্যের সেরা সুন্দরীর

সিরিয়ায় জন্ম, যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা মেলেনি যুক্তরাজ্যের সেরা সুন্দরীর

লি ক্লাইভ। ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া মিসেস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে ভিসার আবেদন করেছিলেন যুক্তরাজ্যের সেরা সুন্দরী লি ক্লাইভ। কিন্তু দেশটিতে যাওয়ার অনুমতি মেলেনি এই সুন্দরীর। খবর বিবিসি’র।
চলতি মাসের ১৫ তারিখ শুরু হবে ৩৫ তম বার্ষিক মিসেস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতা। যা বিবাহিত নারীদের জন্য উন্মুক্ত। এতে আরও ৫৭ জন প্রতিযোগী অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।
বিবিসির ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়, লি ক্লাইভ ধারণা, তার জন্ম সিরিয়ার দামাস্কাসে হওয়া যুক্তরাষ্ট্র তার ভিসার আবেদন প্রত্যাখান করেছেন। এর কারণ হিসেবে ২৯ বছরের এই সুন্দরী উল্লেখ করেন, তার স্বামী ও মেয়ে একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসার জন্য আবেদন করেছিল। তাদের ভিসা দেওয়া হয়েছে। আর তাদের জন্ম যুক্তরাজ্যে।

সিরিয়ায় জন্ম নেয়া লি ক্লাইভ ২০১৩ সালে যুক্তরাজ্যে আসার পর ইংরেজি বলতে শিখেছেন এবং নারী সমতা ও শরণার্থীদের অধিকারের জন্য প্রচারণা চালিয়েছেন।
তিনি জানিয়েছেন, যুক্তরাজ্যের পাসপোর্ট দিয়ে ভিসার আবেদন করেছেন এবং দেশটিকেই প্রতিনিধিত্ব করছেন। যুক্তরাজ্যের নাগরিক হওয়ায় ঢুকতে বাধা দেয়া হবে তা কখনো ভাবেননি।
আশঙ্কা প্রকাশ করে লি ক্লাইভ আরও জানান, তিনি হয়তো এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন না। তবে তিনি আশাবাদী দ্রুত সময়ের মধ্যে বিষয়টি সমাধান হবে। যদিও হাতে সময় খুবই কম।
যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এক বার্তায় জানানো হয়, মার্কিন আইন অনুযায়ী ভিসা সংক্রান্ত বিষয়টি গোপনীয় ব্যাপার, তাই এ বিষয়ে তারা কোনো মন্তব্য করতে পারবে না।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com