সালিশে ১ লাখ টাকা জরিমানা শিক্ষককে, অপমানে কোচিং সেন্টারেই আত্মহত্যা

সালিশে ১ লাখ টাকা জরিমানা শিক্ষককে, অপমানে কোচিং সেন্টারেই আত্মহত্যা

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি:
মুন্সিগঞ্জ সদরের পঞ্চসার এলাকা থেকে মৃধুল সূত্রধর (২৬) নামের কোচিং সেন্টারের এক শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (৮ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃধুল স্থানীয় সূত্রধর এলাকার সুমন সূত্রধরের ছেলে। পরিবারের অভিযোগ কোচিং ব্যবসার অংশীধার বন্ধুর সাথে ঝগড়ার জেরে সালিসে মৃধুলকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও হেনস্তা করা হয়। এতে অপমান সইতে না পেরে শনিবার দিবাগত রাতে সূত্রধর সেই কোচিং সেন্টারে আত্মহত্যা করেন।
স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, মৃধুল ও তার বন্ধু সঞ্জয় যৌথ অংশীদারিত্বে এলাকায় একটি কোচিং সেন্টার পরিচালনা করে আসছিল। সম্প্রতি তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) রাতে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর খান, ইউপি সদস্য মামুনসহ এলাকার কয়েকজন সালিশ বিচারে মৃধুলকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও হেনস্তা করে। বিচারের পর বাসায় না ফিরে রাতে কোচিং সেন্টারেই ছিল মৃধুল। শনিবার সকালে ওই কোচিংয়েই তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায় পরিবারের লোকজন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।
এদিকে, ঘটনার রাতে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস দেয় মৃধুল। সেখানে তিনি লেখেন, এ কেমন বিচার? বাদী, বাদীপক্ষ, বিচারক এবং এই বিচার ব্যাবস্থাকে ধিক্কার!!
এ ঘটনায় নিহতের বাবা সুমন সূত্রধর ও নিপু রানি মন্ডল বোন জানান, এক লাখ টাকা জরিমানা দেওয়ার সামর্থ্য তাদের নেই। অপমান সইতে না পেরে রাতের কোনো একসময় কোচিংয়ে আত্মহত্যা করেছে মৃধুল। ঘটনার সুষ্ঠ বিচারের দাবি তাদের।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কথা বলতে রাজি হয়নি আওয়ামী লীগ নেতা আলমগীর খান, ইউপি সদস্য মামুন। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিক জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কোচিং শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ও তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এসজেড/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com