লাল পতাকা হাতে সহপাঠীদের বিক্ষোভ, বন্ধ হলো বাল্য বিবাহ

লাল পতাকা হাতে সহপাঠীদের বিক্ষোভ, বন্ধ হলো বাল্য বিবাহ

ঘটনাস্থলে লাল পতাকা হাতে শিক্ষার্থীরা।

নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর চাটখিলে স্কুলের সহপাঠীদের বিক্ষোভের পর এক কিশোরীর (১৩) বাল্য বিবাহ বন্ধ করেছে প্রশাসন।
বুধবার (২২ জুন) দুপুরের দিকে উপজেলার ৪নং বদলকোট ইউনিয়নে মধ্য বদলকোট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এস এম মুসা বলেন, বদলকোট ইউনিয়নের দারুল ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণী পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর বিয়ে হচ্ছে বলে আমাদের জানান ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক। ইতোমধ্যে ওই কিশোরীর সহপাঠীরা তার বিয়ের খবর শুনে লাল পতাকা হাতে বাল্য বিবাহ বন্ধের দাবিতে তার বাড়িতে বিক্ষোভ করে।
ইউএনও আরও জানান, এরপর পুলিশেরসহ ওই ছাত্রীর বাড়িতে উপস্থিত হই। ভ্রাম্যমাণ আদালত বাল্য বিবাহ দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে ওই কিশোরীর বাবাকে ২ হাজার ও বিয়ে করতে আসা বরপক্ষকে ৮ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করে। মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার আগে বিয়ে দেবেন না, মর্মে মুচলেকাও দিয়েছে ওই কিশোরীর পরিবার।
পরে, সেখানে উপস্থিত সবাইকে বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কে জানিয়ে বাল্য বিবাহের ঘটনা ঘটলে তাকে অবহিত করার অনুরোধ করেন ইউএনও মুসা।
/এসএইচ

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com