রংপুরে পরকীয়ায় বলি হলো এক সন্তানের জননী

রংপুরে পরকীয়ায় বলি হলো এক সন্তানের জননী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রংপুর:
রংপুরে পরকীয়ায় বলি হয়েছেন নাছরিন আকার নামের এক সন্তানের জননী। তিনদিন পর শুক্রবার রাত ৮টায় তার লাশ শনাক্ত করেছে পরিবার।
নিহত নাছরিনের ভাই বিপ্লব, চাচি নাহিদা ও বোন জামাই ইব্রাহিম আজম জানান, ৬ বছর আগে রংপুর মহানগরীর নাজিরদিগর বোনগ্রাম এলাকার নজরুল ইসলামের কন্যা নাছরিন আক্তারের সাথে বিয়ে হয় পাশের বকশি এলাকার দুলাল মিয়ার পুত্র রবিউল ইসলামের সাথে। তাদের ২ বছর বয়সী নাসির নামের একটি পুত্র সন্তান আছে। এরইমধ্যে নাসরিন নগরীর দোলাপাড়া এলাকার মাফু মিয়ার পুত্র হাতকাটা আজিজুল ইসলামের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। ৫ মাস আগে নাসরিন আজিজুলের সাথে পালিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাকে পরিবারের লোকজন পায়নি।
রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি অ্যান্ড মিডিয়া) উত্তম প্রসাদ পাঠক জানান, ৩১ মার্চ রাত ১১টায় একটি অটোতে করে নাসরিনকে পয়জেনিং রোগী হিসেবে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ১ এপ্রিল বিকেল সাড়ে চারটায় নাসরিন মারা গেলে লাশ অজ্ঞাতনামা হিসেবে মরচুয়ারিতে রাখা হয়। আজ শুক্রবার রাত ৮টায় পুলিশ তার স্বজনদের খুঁজে পেলে তার ভাই রাশেদুল ও বিপ্লব এসে লাশ সনাক্ত করেন। এ ঘটনায় তাজহাট মেট্রো থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
নিহত নাছরিনের বড় ভাই রাশেদুল ইসলাম জানান, বিয়ের পর আমার বোন হাতকাটা আজিজুল নামের এক ব্যক্তির সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে পালিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও আমরা তাকে পাইনি। পরে জানতে পারলাম মডানে ভাড়া বাসায় আজিজুল নাসরিনকে হত্যা করে মুখে কীটনাশক দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে যায়। তিনদিন পর আমরা পুলিশের মাধ্যমে আমার বোনের লাশের সন্ধান পেলাম। আমরা পরিবারের পক্ষ থেকে হাতকাটা আজিজুলের ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি।
ইউএইচ/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com