যে কারণে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে নারী নিয়োগ দিলো বিএসএফ

যে কারণে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে নারী নিয়োগ দিলো বিএসএফ

ছবি: সংগৃহীত।

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে নারী কনস্টেবল নিয়োগ দিয়েছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ। মূলত বেআইনি কর্মকাণ্ড, পাচার ও চোরাচালানসহ অন্যান্য অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে নারীদের যুক্ত থাকার খবর পেয়েই তা ঠেকাতে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বিএসএফের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মিন্ট।
মূলত, সীমান্তের হরিদাসপুর-জয়ন্তীপুর বর্ডার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত শুরুর পয়েন্ট। সীমান্তের ওই পাশে একটি গ্রাম আছে, যেটি আংশিকভাবে ভারতের অন্তর্গত। বিএসএফের সন্দেহ, ওই গ্রামে বসবাসকারী ৫৬ জন নারী বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত। তারা প্রায়ই উভয় দেশে ভ্রমণ করেন। তাই এসব নারীকে তল্লাশি ও আরও সতর্কতার জন্য বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের হরিদাসপুর-জয়ন্তীপুর বর্ডার ফাঁড়িতে ৩৬ জন নারী কনস্টেবল নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
আরও পড়ুন: সোলাইমানির মৃত্যুবার্ষিকীতে জেরুজালেম পোস্টের ওয়েবসাইট হ্যাক
সীমান্তে নিয়োগপ্রাপ্ত একজন কনস্টেবল সুহাসিনী পুহান জানান, এই গ্রাম থেকে বাংলাদেশের সীমান্ত মাত্র কয়েক মিটার দূরত্বে অবস্থিত। ওই গ্রামের নারীরা যাতে কোনো বেআইনি কর্মকোণ্ডে যুক্ত থাকতে না পারে তাই তাদের তল্লাশি চালানো হয়। গ্রামটিতে যখন আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অভিযানে যান, তাদের সাথে আমরাও সেখানে উপস্থিত থাকি।
এসজেড/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com