ময়মনসিংহের সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৬ জনসহ ৭ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহের সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৬ জনসহ ৭ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ ব্যুরো: ময়মনসিংহ নেত্রকোণা সড়কের তারাকান্দা গাছতলা বাজারে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হলেন একই পরিবারে ৬ সদস্য। রোববার দুপুরের এ মর্মান্তিক ঘটনায় সিএনজি অটোরিকসার চালকসহ নিহত হয়েছে ৭ জন। ঘর আলো করে এসেছে কন্যা সন্তান। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ছুটি নিয়ে কন্যাসন্তান ও পরিবারে সদস্যদের নিয় সিএনজি অটোরিকসায় করে তারা বাড়ি ফিরছিলেন। তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের নিশ্চিত করে জানান, ময়মনসিংহ-নেত্রকোণা মহাসড়কের গাছতলা বাজার সংলগ্ন এলাকায় ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে যাওয়া নেত্রকোণার পূর্বধলাগামী একটি সিএনজি অটোরিকসার সাথে নেত্রকোণা থেকে ঢাকাগামী একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ৭ জন প্রাণ হারান। খবর পেয়ে পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহগুলো উদ্ধার করে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। পরে শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে থানার অধীনে মরদেহগুলো হস্তান্তর করা হয়। শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে থানার পুলিশ পরিদর্শক নয়ন দাশ জানান, নিহতদের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৬ জন একই পরিবারের এবং অপর একজন সিএনজি অটোরিকসা চালক। নিহতদের বাড়ি নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের চেচুয়ালেন্দি গ্রামে। নিহতরা হলেন মাওলানা ফারুক (২৫), তার স্ত্রী মাসুমা বেগম (২০), ভাই নিজামউদ্দীন, ভাবী জোসনা বেগম (২৫), বোন জুলেখা খাতুন (৩৫) এবং তার ৫ দিন বয়সী কন্যা শিশু। সিএনজি চালকের পরিচয় শনাক্ত হয়নি। নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের স্বজনদের খবর দেয়া হয়েছে। মরদেহগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে। এঘটনায় শাহজালাল পরিবহন নামে একটি বাস আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ। নিহত মাওলানা ফারুকের চাচাতো ভাই আনোয়ার হোসেন জানান, ফারুক-মাসুমা দম্পতির সন্তান প্রসবের জন্য তারা গত সপ্তাহে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ৫ দিন পূর্বে তাদের সন্তানের জন্ম হয়। এরপর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে এই সড়ক দুর্ঘটনায় তারা প্রাণ হারান।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com