মোংলা বন্দরে পৌঁছালো মেট্রোরেলের ছয়টি রেলওয়ে কার

মোংলা বন্দরে পৌঁছালো মেট্রোরেলের ছয়টি রেলওয়ে কার

বাগেরহাট প্রতিনিধি:
মোংলা বন্দরে এসে পৌঁছেছে মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালানে আরও ছয়টি রেলওয়ে কার বা বগি। যা রোববার বিকাল পাঁচটার মধ্যে খালাস ও শেষ করেছে আমদানি কারি প্রতিষ্ঠান।
জাপানের কোবে বন্দর থেকে ছেড়ে আসা মেট্রোরেলের বগিবাহী বেলিজের পতাকাবাহী ‘এমভি ওশান গ্রেস’ জাহাজ রোববার দুপুর সাড়ে বারোটায় মোংলা বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে এসে নোঙ্গর করে। এবং দুপুর সোয়া দুইটা থেকে খালাস কার্যক্রম শুরু হয়ে বিকাল পাঁচটার দিকে ছয়টি বগি খালাস সম্পন্ন করেছে।
লাইটার কার্গো জাহাজে খালাসের পর এসব রেলওয়ে কার নৌপথে পাঠিয়ে দেয়া হবে উত্তরার দিয়াবাড়ীতে।
এর আগে, ২১ এপ্রিল সকালে জাহাজীকরণ শেষে কোবে সমুদ্রবন্দর থেকে এই দ্বিতীয় চালানের ছয় সেট ট্রেন নিয়ে জাপানের কোবে বন্দর থেকে বাংলাদেশে রওনা দিয়েছিল জাহাজ ‘এমভি ওশান গ্রেস’। এই নিয়ে মোংলা বন্দরে মেট্রোরেলের দুটি চালান পৌঁছালো। গত ৩১ মার্চ ছয়টি রেলওয়ে কার বা বগি নিয়ে মেট্রোরেলের প্রথম চালান পৌঁছায় মোংলা বন্দরে। প্রথম চালানের ছয়টি রেলওয়ে কার ইতোমধ্যে নদী পথে ঢাকায় পৌঁছেছে।
মেট্রোরেলের রেলওয়ে কারবাহী বিদেশি জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এনসিয়েন্ট স্টিমশিপ কোম্পানি লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক মো. ওহিদুজ্জামান জানান, ছয়টি বগি নিয়ে ‘এমভি ওশান গ্রেস’ নামের জাহাজটি মোংলা বন্দরে এসে পৌঁছানোর পর বগিসহ আনুষঙ্গিক মালামাল বোঝাই কনটেইনার খালাস কাজ বিকালে শেষ হয়েছে। এর ওজন হবে ২৬৭ মেট্রিক টন। ১৬ ঘণ্টা ধরে লাইটার কার্গো জাহাজে খালাসের পর এসব রেলওয়ে কার নৌপথে নেয়া হবে উত্তরার দিয়াবাড়ীতে।
ঢাকা ম্যাস র‍্যাপিড ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের কন্ট্রাক্ট প্যাকেজ-৮ এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক এবিএম আরিফুর রহমান জানান, মেট্রোরেলের লাইন-৬ কন্ট্রাক্ট প্যাকেজ-৮ এর আওতায় ২৪টি যাত্রীবাহী রেল কোচ আমদানি করা হবে। প্রতিটি কোচে ছয়টি বগি বা কার থাকবে। ছয়টি বগির একটি প্যাকেজে ভ্যাট-ট্যাক্সসহ প্রায় একশ কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে। রোববার দুপুরে দ্বিতীয় বারের মতো মেট্রোরেলে ছয়টি বগি মোংলায় এসেছে। এর আগে ৩১ মার্চ সর্বপ্রথম ছয়টি বগি এসেছিল মোংলা বন্দরে। পরবর্তীতে আমরা তা নৌপথে ঢাকায় মেট্রোরেলের নিজস্ব স্থানে নিয়েছি।
মেট্রোরেলের জন্য ২৪ সেট ট্রেন তৈরি করছে জাপানের কাওয়াসাকি-মিতসুবিশি। প্রতি সেট ট্রেনের দু’পাশে দুটি ইঞ্জিন থাকবে। এর মধ্যে থাকবে চারটি করে কোচ। ট্রেনগুলোয় ডিসি ১৫০০ ভোল্ট বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা থাকবে। স্টেইনলেস স্টিল বডির ট্রেনগুলোতে থাকবে লম্বালম্বি আসন। প্রতিটি ট্রেনে থাকবে দুটি হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত প্রতিটি বগির দুপাশে থাকবে চারটি করে দরজা। জাপানি স্ট্যান্ডার্ডের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সংবলিত প্রতিটি মেট্রোরেলে যাত্রী ধারণক্ষমতা হবে এক হাজার ৭৩৮ জন।
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসা জানান, রোববার দুপুরে দ্বিতীয় বারের মত মোংলা বন্দরে এসে পৌঁছেছে মেট্রোরেলের বগি নিয়ে এসেছে একটি বিদেশি জাহাজ। পর্যায়ক্রমে ২০২২ সালের মধ্যে ২৪টি জাহাজে করে এ বন্দর দিয়ে খালাস হবে মেট্রোরেলের আরও ১৪৪টি বগি।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com