মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে পরীক্ষা দেয়া সাফিয়া জানলো না সে জিপিএ-৫ পেয়েছে!

মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে পরীক্ষা দেয়া সাফিয়া জানলো না সে জিপিএ-৫ পেয়েছে!

সাফিয়া এখন শুধুই ছবি! এসএসসি পরীক্ষার শেষ হওয়ার একদিন পরেই মৃত্যু হয় সাফিয়ার।

রাজশাহী ব্যুরো:
স্বপ্ন ছিল ভালো কলেজে ভর্তি হওয়ার। সে কারণে মেয়েটি সারাদিনই ব্যস্ত থাকতো লেখাপড়ায়। এসএসসি পরীক্ষার তিন দিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়লেও প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তির কারণে বসে পরীক্ষার হলে। কোনোমতে এক বিষয়ের পরীক্ষা দেয়ার পর অবস্থার অবনতি হয়। অনেক জোরাজুরি করেই তাকে রাজশাহী নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেন পরিবারের সদস্যরা। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ধরা পড়ে অ্যাপেন্ডিসাইটিস। সে অবস্থায়ও পরীক্ষায় অংশ নিতে অনড় মেয়েটি। একপর্যায়ে শেষও করে পরীক্ষা।
লেখাপড়ায় প্রচণ্ড আগ্রহী মেয়েটির নাম সাফিয়া। রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার পুরান তাহেরপুর গ্রামের ব্যবসায়ী বাবা শফিকুল ইসলাম ও স্কুলশিক্ষক মা মরিয়ম খাতুনের একমাত্র কন্যা।
বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) সাফিয়ার এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। সবকটিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে সে। ভালো ফলাফলে তার পরিবারে আনন্দ উদযাপনের কথা থাকলেও সেখানে পড়েছে কান্নার রোল। বাড়ির আশেপাশে প্রতিবেশীদের মাঝেও বিষাদের ছায়া।
এর কারণ এসএসসি পরীক্ষার একদিন পরেই সাফিয়া মৃত্যুবরণ করেছে। ফলাফল আসার আগেই ত্যাগ করেছে ইহলোক।
সাফিয়ার মামা জাকিরুল ইসলাম জানান, এসএসসি পরীক্ষা শেষে তাকে আবারও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে অস্ত্রোপচারের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়। অস্ত্রোপচার করার আগেই ২৭ নভেম্বর সাফিয়া মারা যায়।
তার মামা বলেন, সাফিয়া পিএসসি ও জেএসসিতেও ভালো ফলাফল করেছে। এসএসসিতেও ভালো ফলাফল। অথচ সে আমাদের মাঝে নেই। তার স্মৃতি নিয়েই বাকীটা জীবন আমাদের চলতে হবে। এটা দুঃসহ ব্যাপার।
আরও পড়ুন- পরীক্ষা খারাপ দেয়ায় ঘর ছাড়ে মোস্তাকিম! উত্তীর্ণ হয়েছে জিপিএ-৫ পেয়ে
এনবি/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com