মুন্সিগঞ্জে দুই বাল্যবিয়ে বন্ধ, খাবার গেলো এতিমখানায়

মুন্সিগঞ্জে দুই বাল্যবিয়ে বন্ধ, খাবার গেলো এতিমখানায়

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি:
মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় ইউএনও’র হস্তক্ষেপে নবম ও দশম শ্রেণির দুই ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পুরাতন বাউশিয়া ও নয়ানগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এঘটনায় বাল্যবিয়ে নিরোধ আইনে দশম শ্রেণির ছাত্রীর পরিবারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও নবম শ্রেণির ছাত্রীর পরিবার থেকে প্রাপ্ত বয়সের আগে বিয়ে না দেওয়ার মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পুরাতন বাউশিয়া এলাকার নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সাথে পাশের গ্রামের এক ছেলে ও গজারিয়া ইউনিয়নে নয়ানগর এলাকার দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে একই উপজেলার ইমামপুরা ইউনিয়নের করিমশাহ গ্রামের এক ছেলের বিয়ের আয়োজন করে দুই ছাত্রীর পরিবার। খবর পেয়ে দুপুরেই দু’টি বিয়েই বন্ধ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজুল ইসলাম চৌধুরী।
গজারিয়া ইউএনও রিয়াজুল ইসলাম চৌধুরী জানান, নয়ানগর গ্রামে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর বাল্যবিয়ে খবরটি পাই স্থানীয় এক সাংবাদিকের মাধ্যমে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এসময় বাল্য বিয়ে নিরোধ আইনে বিয়ে আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়ায় ছাত্রীর বাড়ির লোকদের ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া আমাদের প্রতি ইউনিয়নে কিশোর-কিশোর ক্লাব আছে। দুপুরে পুরাতন বাউশিয়া এলাকার সে ক্লাবের সদস্যরা আমাকে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর বাল্যবিয়ের বিষয়টি অবহিত করে। সে ঘটনায় স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে ওই ছাত্রীর বিয়ে বন্ধ করা হয়েছে।
তিনি আরও জানান, বিয়ে বন্ধ করা পর্যন্ত দু’টি আয়োজনেই ছেলের পক্ষের লোকজন উপস্থিত হয়নি। আয়োজনের খাবার স্থানীয় এতিমখানা ও মাদ্রাসায় বিতরণ করা হয়েছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com