মাদারীপুরে নারী পাচারকারী ভারতীয় দম্পতি আটক

মাদারীপুরে নারী পাচারকারী ভারতীয় দম্পতি আটক

মাদারীপুরে পাচারকারী দম্পতি আটক, এক নারী উদ্ধার। প্রতীকী ছবি।

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর:
গার্মেন্টসে চাকুরীর প্রলোভন দিয়ে ঢাকার সাভার থেকে এক নারীকে ভারতে পাচারের উদ্দেশে মাদারীপুরের শিবচরে এনে আটকে রাখে পাচারকারী ভারতীয় নাগরিক দম্পতি। বিষয়টি বুঝতে পেরে কৌশলে ওই নারী ৯৯৯-এ কল করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করেছে ও পাচারকারী স্বামী ও স্ত্রীকে আটক করেছে।
পুলিশ ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, ঢাকার সাভার পৌরসভার আড়াপাড়া গ্রামের সজল মোল্লার স্ত্রী সোমা আক্তার (১৯) গত ১২ ডিসেম্বর বিকেলে তার অসুস্থ বান্ধবী সাথী আক্তার প্রিয়াকে দেখতে তার বাসায় যায় এবং ওই বাসায় রাত্রি যাপন করে। পরদিন ১৯ ডিসেম্বর সকালে সাথী আক্তার প্রিয়ার বাসায় তার আরেক কথিত বান্ধবী শুভতারা (১৯) ও তার স্বামী মানিক বিশ্বাস (৩২) বেড়াতে আসে। এসময় সাথী আক্তার প্রিয়া ভুক্তভোগী সোমা আক্তারের সাথে মানিক বিশ্বাস ও তার স্ত্রী শুভতারার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।
এরপর, মানিক ও তার স্ত্রী শুভতারা দু’জনেই ঢাকার উত্তরায় গার্মেন্টসে চাকুরী করে মাসে ৩০/৩৫ হাজার টাকা বেতন পায় বলে তারা সোমাকে জানায়। সোমা আক্তার বিষয়টি তাহার স্বামী সজল মোল্লার সাথে আলোচনা করে একপর্যায়ে রাজি হয়ে ওই দিনই দুপুরে সাথী আক্তার প্রিয়ার বাসা থেকে মানিক ও তার স্ত্রী শুভতারার সাথে উত্তরার উদ্দেশে রওনা হয়।
বাসা থেকে বের হওয়ার পর মানিক ও শুভতারা সোমাকে নিয়ে উত্তরার পথে না গিয়ে শিমুলীয়া ঘাটের দিকে আসতে থাকে। এসময় সোমা ভিন্ন পথে আসার কারণ জানতে চাইলে শুভতারা বলে তার দুলাভাই বিদেশে যাবে, তাই তারা আজ গ্রামের বাড়ি যাবে এবং ২২ ডিসেম্বর দুলাভাইসহ সবাই একসাথে ঢাকায় আসবে। এভাবে প্রতারণা করে সোমা আক্তারকে তারা কৌশলে শুভতারার বাবার বাড়ি মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের বড় কেশবপুর গ্রামের শফি ফকিরের বাড়ীতে নিয়ে আসে। সেখানে তারা সোমাকে দিনের বেলা চোখে চোখে রাখলেও রাতে ঘরের দরজা তালাবন্ধ রাখে। এসব দেখে সোমার খটকা লাগে।
২২ ডিসেম্বর সকালে মানিক ও তার স্ত্রী শুভদারা সোমাকে ভারতে পাচার করবে বলে মোবাইল ফোনে বিভিন্ন জনের সাথে আলাপ-আলোচনা করছিল। আড়াল থেকে সোমা তাদের কথা শুনতে পেয়ে কৌশলে জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে শিবচর থানা পুলিশকে জানায়।
খবর পেয়ে শিবচর থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে সোমা আক্তারকে উদ্ধার করে ও পাচারকারী চক্রের সদস্য ভারতীয় নাগরিক মানিক বিশ্বাস ও তার স্ত্রী শুভতারাকে গ্রেফতার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে মানিক বিশ্বাস ভারতের নাগরিক বলে নিশ্চিত হয় পুলিশ। আসামিদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
আরও পড়ুন– কুমিল্লায় শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে হত্যা: মূল আসামি ‘মুরগা নাছিরসহ’ গ্রেফতার ৪
গ্রেফতারকৃত মানিক বিশ্বাস ভারতের উত্তর চব্বিশ পরগনার বনগাঁ থানার নয়া গোপালগঞ্জ গ্রামের বীরেন্দ্র নাথ বিশ্বাসের ছেলে ও তার স্ত্রী শুভতারা মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কুতুবপুর গ্রামের শফি ফকিরের মেয়ে। মানিক বিশ্বাস প্রতিমাসে ৩- ৪ বার অবৈধ পথে বাংলাদেশে আসে বলে সে পুলিশকে জানিয়েছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com