ব্যাটিং ধসের কারণ ব্যাখ্যায় যা বললেন ডমিঙ্গো

ব্যাটিং ধসের কারণ ব্যাখ্যায় যা বললেন ডমিঙ্গো

রাসেল ডমিঙ্গো। ফাইল ছবি।

পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসেই লঙ্কানদের থেকে ২৪২ রানে পিছিয়ে গেছে মুমিনুলরা। স্বভাবতই বাংলাদেশ দলের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে দিন শেষে জবাব দিতে হয়েছে অনেক প্রশ্নের। ডমিঙ্গোর মতে, খেলার এখনও বাকি আছে অনেক। ঢাল হিসেবে ক্রিকেটারদের চারদিনের ম্যাচ খেলার ঘাটতির কথাও টানলেন। বললেন, টানা ফিল্ডিং করে ক্লান্ত ছিলেন ক্রিকেটাররা।
টাইগার কোচের মতে, ব্যাটিং করাটা সহজ নয় এখন। আর প্রথম শ্রেণি, কোভিড এবং অন্যান্য ব্যাপার মিলিয়ে ব্যাপারটি বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।
তিনি বলেন, খেলা শুরু হলেও প্রথম বা দ্বিতীয় রাউন্ডের পরই স্থগিত হয়ে যায় । ছেলেরা তেমন একটা চারদিনের ক্রিকেট পায়নি। কোনো অজুহাত নয়। আমরা প্রথম টেস্টে খুব ভালো খেলেছি, কিন্তু আমরা খুব সম্ভবত মানসিকভাবে ক্লান্ত।
বেশ টার্ন দেখা গেছে তৃতীয় দিনের পিচে। সেট হয়ে আউট হয়েছেন তামিম (৯২), মুমিনুল (৪৯), মুশফিকরা (৪০)। এটা কি মানসিক ক্লান্তির ফল? নাকি পিচের জন্য এমন হয়েছে? এ প্রশ্নে রাসেল ডমিঙ্গোর উত্তর, আমার ধারণা দু’টি মিলিয়েই হয়েছে। তারা সেট ছিল এবং খেলছিলো ভালো। ছেলেরা পরিশ্রম করছে, অনেক চেষ্টা করছে। তারা মাঠে ও নেটে পরিশ্রম করছে। এটা দুর্ভাগ্যজনক যে আমরা ব্যাটিংয়ের সময় কিছু বাজে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আজকে আমাদের জন্য দিনটি কঠিন ছিলো।
ডমিঙ্গো বলেন , আমাদের পজেটিভ থাকতে হবে। এখনও অনেক ক্রিকেট বাকি। কাল দ্রুত কিছু উইকেট নেয়ার চেষ্টা করবো আমরা। আপনি জানেন না ক্রিকেটে কখন কী হয়। আমাদের চতুর্থ দিনে ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে নামতে হবে।
ব্যাটিং ধসের দোষটা পিচের ওপর বর্তায় কিনা এমন প্রশ্নে ডোমিঙ্গোর জবাব, না, কোনো অজুহাত নেই। ছেলেরা তাদের সর্বোচ্চটা দিয়েছে। তারা অনেক পরিশ্রম করছে, তারা চেষ্টা করছে। কোনো অজুহাত নয় কিন্তু মাঠে বেশ সময় অতিবাহিত করেছে বলে তাদের হয়তো মনোযোগে একটু ঘাটতি ছিল ব্যাটিংয়ের সময়টায়। আপনাদের মনে রাখতে হবে ছেলেরা প্রায় ৩৮০ ওভার মাঠে ছিল। সেটা মানসিক ও শারীরিকভাবে প্রভাব রেখে যায়। সেটিই হয়তো আজ আমাদের ব্যাটিং ধসের আংশিক কারণ।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com