বৈশাখী শাড়ী কিনে না দেয়ায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা

বৈশাখী শাড়ী কিনে না দেয়ায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রতীকী ছবি।

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় বৈশাখী শাড়ী কিনে না দেয়ায় মায়ের সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আরিফা খাতুন (১৪) নামে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।
বৃহস্পতিবার সকালে নিজ ঘরের ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সে। উপজেলার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের চর সোনাই কাজী গ্রামের শামছুল হকের কন্যা আরিফা। নিহত ছাত্রী চর কুলাঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতো।
নিহত আরিফার মা জাহেনুর বেগম বলেন, ক্ষেতের ভুট্টা বিক্রি করে শাড়ী কিনে দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আজকে আবারও সে শাড়ীর জন্য পিড়াপিড়ি করায় আমি তাকে ধমক দেই। কিন্তু কে জানতো এই ধমকই আমার মেয়ের জীবন শেষ করবে।
শিমুলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান এজাহার আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কয়েকদিন থেকে নিহত আরিফা তার পরিবারের কাছে একটি বৈশাখী শাড়ী কেনার জন্য জেদ ধরেছিল। সেই শাড়ী কিনে না দেয়ায় বাড়ির লোকজনের অগোচরে নিজ শয়ন ঘরের ধরনার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। পরিবারের লোকজনের চিৎকার চেঁচামেচিতে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়।
এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com