‘বিদেশি লিগ খেলার সময়ে পরিবারের কথা মনে পড়বে না?’

‘বিদেশি লিগ খেলার সময়ে পরিবারের কথা মনে পড়বে না?’

ছবি: সংগৃহীত

পরিবারের সঙ্গে বেশি সময় কাটানোর জন্য টেস্ট ক্রিকেট থেকে হঠাৎ অবসর নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন কুইন্টন ডি’কক। তার এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সালমান বাট। বাটের মতে, আকস্মিক অবসর নেয়াটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যেন ‘নাটক’ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) সেঞ্চুরিয়ানে ভারতের কাছে দক্ষিণ আফ্রিকার ১১৩ রানে পরাজয়ের পর ডি’কক টেস্ট ক্রিকেট থেকে দুম করে অবসর নিয়ে বসেন। এই ঘটনায় হতবাক হয়ে গিয়েছিল বিশ্ব ক্রিকেট। ২৯ বছর বয়সী ক্রিকেটার সেঞ্চুরিয়ানে তার শেষ টেস্টে ৩৪ এবং ২১ রান করেছিলেন।
আরও পড়ুন: নতুন বছরে ‘নির্লজ্জ’ ও ‘আত্মকেন্দ্রিক’ পোস্ট দিয়ে তোপের মুখে রোনালদো!
সালমন বাট নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন, কুইন্টন ডি’কক গত দেড় বছরে অদ্ভুত ক্রিকেট খেলছিলেন। তিনি অধিনায়ক হিসেবে পাকিস্তানে আসেন কিন্তু এরপর আর দায়িত্ব পালন করেননি। এখন একটি টেস্ট খেলার পর তিনি অবসর ঘোষণা করেছেন। এই ধরনের বিষয়গুলো দলের ভারসাম্য, নির্বাচন নীতি নষ্ট করে এবং অধিনায়কের মানসিকতাকে প্রভাবিত করে।
তরুণ খেলোয়াড়দের টেস্ট ক্রিকেট থেকে দূরে সরে যাওয়ার জন্য বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের আধিক্যকে দায়ী করেছেন সালমান বাট।
৩৭ বছরের সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার আরও বলেন, খেলোয়াড়রা হঠাৎ করে অবসর নেয়াটাকে নাটক বানিয়ে ফেলেছে। এরপর যখন প্রায় ২মাস ধরে বিদেশি লিগ খেলতে হবে, তখন কি পরিবারের কথা মনে পড়বে না? কেন শুধু টেস্ট ক্রিকেটের ক্ষেত্রেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়? নিজের দেশে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ক্রিকেট খেলার পরেও আগ্রহের অভাবের কারণই হল ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ ক্রিকেটে অংশ নেয়া।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com