বিজয়ী প্রার্থীর কান ছিঁড়ে দিলেন পরাজিত নারী প্রার্থী

বিজয়ী প্রার্থীর কান ছিঁড়ে দিলেন পরাজিত নারী প্রার্থী

আহত বিজয়ী প্রার্থী হাবেজা বেগম।

স্টাফ রিপোর্টার:মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে জয়ী নারী সদস্যের উপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে পরাজিত এক নারী প্রার্থীর বিরুদ্ধে। হামলায় বিজয়ী প্রার্থী হাবেজা বেগমের কান ছিঁড়ে যাওয়ায় সাতটি সেলায় দেয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত নারী প্রার্থী হাবেজা বেগম বয়ড়া ইউনিয়নের ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডে বিপুল ভোটে বিজয়ী হন। জানা গেছে, হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে জয়ী হন হাবেজা বেগম। একই এলাকার কলম প্রতীকের প্রার্থী নার্গিস আক্তার তার কাছে পরাজিত হন। সকালে জয়ী প্রার্থী বাড়ির উঠানে দাঁড়িয়ে ছিলেন এসময় পরাজিত প্রার্থী নার্গিস আক্তার তার লোকজন নিয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা করে। বিজয়ী নারী ইউপি সদস্যের স্বামী রতন প্রামানিক বলেন, আমার স্ত্রী বাড়ির সামনে সড়কে দাঁড়িয়ে ছিলেন। পেছন থেকে পরাজিত প্রার্থী নার্গিস আক্তার ও তার স্বামী রউফ মোল্লাসহ কয়েকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। হামলায় আমার স্ত্রীর কান কেটে যায়। আমরা হরিরামপুর হাসপাতালে আছি, কানে সাতটি সেলাই দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পরাজিত প্রার্থী নার্গিস আক্তার বলেন, জয়ী প্রার্থীর বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় আমাকে বকাবাজি করে, আমার দিকে মারতে আসলে আমি ধাক্কা দেই। পরে গিয়ে কান কেটে গেছে, এ ঘটনায় আমি লজ্জিত। হরিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মিজানুর ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি।/এসএইচ

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com