বাবার লাশের পাশে কান্না করা মরিয়মের পাশে দাঁড়ালো ডিএমপি কমিশনার

বাবার লাশের পাশে কান্না করা মরিয়মের পাশে দাঁড়ালো ডিএমপি কমিশনার

আর্থিক সহায়তার নগদ টাকা ওই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করছেন নওগাঁর পুলিশ সুপার প্রকৌশলী মো. আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, নওগাঁ:
রাজশাহী মেডিকেল কলেজে বাবার লাশের পাশে শিশু মরিয়মের কান্না ছড়িয়ে পড়েছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সেই শিশু মরিয়মের পরিবারকে ব্যক্তিগত ভাবে ২০ হাজার টাকা সহায়তা দেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম বিপিএম বার।
শুক্রবার (৯ জুলাই) দুপুরে আর্থিক সহায়তার নগদ টাকা ওই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন নওগাঁর পুলিশ সুপার প্রকৌশলী মো. আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম। এ সময় তিনি ওই পরিবারের সার্বিক খোঁজ খবর নেন।
নওগাঁর পুলিশ সুপার জানান, ডিএমপি কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম বিপিএম বার, জেলা পুলিশসহ বিভিন্ন ব্যক্তি মরিয়মের পরিবারকে সহায়তা প্রদান করেছেন। ভবিষ্যতেও পরিবারটির সহযোগিতায় পাশে থাকবে পুলিশ বলে আশ্বাস দেন তিনি।
আর্থিক সহায়তা হস্তান্তরকালে নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিনয় চন্দ্র সাহা, পোরশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিউল আজমসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, গত ৬ জুলাই পোরশা উপজেলার কেলোনি পাড়া গ্রামের বাসিন্দা মুজিবুর রহমান করোনা উপসর্গ নিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান। ভর্তির আগেই মৃত্যু হয় তার। এ সময় হাসপাতালের বারান্দায় বাবার মৃতদেহ পাশে বসে কাঁদছিল তার কন্যা শিশু মরিয়ম।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com