বানিয়াচংয়ে বিদ্যালয়ের বিদ্যালয়ের  একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন

বানিয়াচংয়ে বিদ্যালয়ের বিদ্যালয়ের  একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন

এস এম খলিলুর রহমান হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ হবিগঞ্জ-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের বেসরকারি সদস্যদের বিল ও সিদ্ধান্ত প্রস্তাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব এডভোকেট মোঃ আব্দুল মজিদ খান মহোদয় বলেছেন, সারা দেশের ন্যায় বানিয়াচং আজমিরীগঞ্জও প্রায় প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন নতুন আধুনিক ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। শিক্ষা ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে।

প্রত্যন্ত এলাকায় থেকেও শিক্ষার্থীরা তথ্য-প্রযুক্তি নির্ভর আধুনিক শিক্ষা গ্রহন করার সুযোগ পাচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষার উন্নয়নে সব ধরনের ব্যয়কে বিনিয়োগ হিসেবে নিয়েছেন। ভবিষ্যত প্রজন্মকে একটি শিক্ষিত ও দক্ষ জাতি হিসেবে তৈরী করতে সরকার আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে।
বুধবার (২ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় ঐতিহ্যবাহী বানিয়াচং এল আর উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে লিফট সহ একটি একাডেমিক ভবন ও বানিয়াচং বালিকা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫ কোটি ৭৬ লাখ টাকা লিফট সহ একটি একাডেমিক ভবন, মোট (১১ কোটি ২৬ লাখ) টাকা ব্যয়ে দুইটি একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি আব্দুল মজিদ খান মহোদয় উপরোক্ত কথা গুলি বলেন।
তিনি আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন বাংলাদেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে। একটি দেশকে স্বাধীন করে নানা প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে যখন শক্ত একটি ভিতের উপর দাঁড় করাবেন, তখনি জাতির পিতাকে আর বাঁচতে দিল না ঘাতকরা।
পিতার সেই স্বপ্নকে লালন করে দেশকে আজ বিশ্বের বুকে অন্যতম একটি উন্নতশীল দেশ হিসেবে গড়ে তুলেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই স্বপ্নের ফসল হচ্ছে একেবারে গ্রাম পর্যায়ে অত্যাধুনিক লিফট বিশিষ্ট ৬তলা ভবন।
একজন ৬ষ্ট/৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী যখন লিফটের মাধ্যমে বেড়ে উঠবে সঙ্গত কারণেই তার মন-মানসিকতা অনেক বড় হবে। সেই বড় মন নিয়ে শিক্ষা জীবন শেষে যে জায়গায়ই সে থিতু হউক না কেন দেশ ও জাতির কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত করবে। আর বিশেষ করে ঐতিহ্যবাহী এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় এবং বালিকা সরকারি
উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের ব্যাপারটি প্রক্রিয়াধীন।তিনি আরো বলেন, ভাস্কর্য ও মূর্তি এক নয়। এ নিয়ে সারা দেশে একটি মহল ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে। ভাস্কর্য নিয়ে কোন সমস্যা দেখা দিলে জাতীয়ভাবে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের সুযোগ আছে। আর এ ক্ষেত্রে বানিয়াচংয়ের শ্রদ্ধেয় আলেমদের সাথে আমাদের সম্পর্ক অত্যন্ত গভীর।
কোন গুজবে কান দিয়ে কেউ যদি অযথা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পায়তারা করেন তাহলে তারা যেই হউক প্রশাসন ব্যবস্থা নিবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শিক্ষা প্রকৌশলের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমীর হোসেন মাস্টার, সহ সভাপতি বিপুল ভূষণ রায়, আব্দুর কাদির তুফানি, সাধারণ সম্পাদক জনাব ইকবাল হোসেন খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তজমূল হক চৌধুরী, মোঃ আঙ্গুর মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান মিয়া, গোলাম কিবরিয়া লিলু, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসিনা আক্তার, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান রেখাছ মিয়া, আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মিয়া প্রমুখ।
উক্ত সভায় দলীয় নেতৃবৃন্দ, প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক মন্ডলী ছাত্র ছাত্রী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন ।
শিক্ষা প্রকৌশলের তথ্য মতে জানা যায় হবিগঞ্জ জেলায় চারটি ৬ তলা একাডেমিক ভবন নির্মাণের অনুমোদন হয় এর মধ্যে বানিয়াচং উপজেলা সদরে দুইটি।

 

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com