বরিশালে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের হাত ভেঙে দেয়ার অভিযোগ আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে

বরিশালে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের হাত ভেঙে দেয়ার অভিযোগ আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে

বরিশাল ব্যুরো:
বরিশালের গৌরনদী উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সেকান্দার আলী মৃধাকে মারধর ও তার হাত ভেঙে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগের স্থানীয় এক নেতার বিরুদ্ধে।
গতকাল সোমবার (১০ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে নলচিড়া কয়ারিয়া বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। সেকান্দার মৃধা নলচিড়া ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতিও ছিলেন।
সেকান্দার আলী মৃধার পরিবারের অভিযোগ, গতকাল সোমবার রাতে কয়ারিয়া বাজারে একটি সেলুনে চুল কাটাচ্ছিলেন ৭১ বছর বয়সী সেকান্দার মৃধা। এ সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও নলচিড়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য শহীদ খানের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১৫ জন সন্ত্রাসী তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। লোহার রড ও পাইপ দিয়ে পিটিয়ে তাকে গুরুতর যখম করে। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।
সেকান্দার মৃধার ছেলে তারেক মৃধা জানান, সন্ত্রাসী হামলায় তার বাবার ডান হাতের কব্জি ভেঙে গেছে। মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। বুকে ও কোমড়েও ব্যথা অনুভব করছেন। তাই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পরাপর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে ঢাকায় নেয়া হচ্ছে।
এদিকে অভিযোগের ভিত্তি নেই দাবি করে ইউপি সদস্য শহীদ খান বলেন, আমি শুনেছি তিনি গতরাতে সরকারিবিরোধী লোকজন নিয়ে সভা করছিলেন। এসময় স্থানীয় যুবকরা তাদের ধাওয়া করে। ধাওয়া খেয়ে দৌঁড়ে পালানোর সময় তিনি পরে গিয়ে আহত হয়েছেন।
গৌরনদী থানার ওসি আফজাল হোসেন বলেন, দুপুর আড়াইটার দিকে সেকান্দার আলীর মেয়ে ঢাকা থেকে টেলিফোনে বিষয়টি আমাকে জানিয়েছেন। তার কাছ থেকে মৌখিক অভিযোগ পেয়ে আমরা খোঁজ-খবর নিচ্ছি। তবে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ দেননি।
জেডআই/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com