বকেয়া বেতনের দাবিতে আফগানিস্তানে শিক্ষকদের বিক্ষোভ

বকেয়া বেতনের দাবিতে আফগানিস্তানে শিক্ষকদের বিক্ষোভ

ছবি: সংগৃহীত।

প্রায় চারমাস ধরে বেতন পাচ্ছেন না আফগান শিক্ষকরা। বকেয়া বেতন পরিশোধের জন্য দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ হেরাতে এবারে রাস্তায় নেমেছেন শত শত আফগান শিক্ষক। তাদের দাবি, চারমাস ধরে কোনো বেতন পাচ্ছেন না শিক্ষকরা। দেশে চলমান অবস্থায় তাই চরম অর্থকষ্টে ভুগছেন এসব শিক্ষক। খবর আফগান সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজের।
সম্প্রতি পাঁচটি প্রদেশে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল খুলে দিয়েছে তালেবান। নারীদেরও অনুমতি দেয়া হয়েছে শিক্ষাকার্যক্রমে অংশ নেয়ার। তবে শিক্ষকদের দাবি, ঠিকমতো বেতন না পাওয়ায় পরিবার নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা।
আন্দোলনে নামা এসব শিক্ষক বলছেন, গত চার মাস ধরে তাদের বেতনের সামান্য কিছু অংশ দেয়া হচ্ছে। তা দ্বারা শুধুমাত্র দৈনিক চাহিদাই মেটানো সম্ভব। ভবিষ্যতের জন্য অর্থ জমানো বা চিকিৎসাসহ অন্যান্য মৌলিক চাহিদা এই অর্থ দ্বারা মেটানো কোনোভাবেই সম্ভব না। তাই বাকি বেতন পরিশোধের জন্য রাস্তায় নেমেছেন তারা।
টোলো নিউজের তথ্য মতে, গত চারমাস ধরে আফগানিস্তানের প্রায় ১৮ হাজার শিক্ষক বেতন পাননি। এর মধ্যে নারী শিক্ষকের সংখ্যাই ১০ হাজার। যদিও, আফগানিস্তানের শিক্ষক সমিতির প্রধান সাবির মাশাল বলেছেন, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই শিক্ষকদের এক মাসের বেতন দেয়া হবে।
এর আগে, গত সপ্তাহেও সামানগান ও নূরিস্তান প্রদেশের কয়েকশ’ আফগান চিকিৎসক বকেয়া বেতনের দাবিতে জাতিসংঘের মিশনের ভবনের সামনে অবস্থান নেন। তাদের দাবি ছিল, গত ১৪ মাস ধরে বিনা বেতনে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তারা। এছাড়া ওই সব প্রদেশে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জামেরও মারাত্মক সংকটের কথাও তুলে ধরেন তারা।
এ নিয়ে আফগানিস্তানের শিক্ষক সমিতির প্রধান সাবির মাশাল বলেন, শুধু শিক্ষক নয়, আফগানিস্তানের সকল বেসামরিক কর্মীদের বেতন অনেক দিন ধরেই অনিয়মিত। এতদিন তারা বাড়ির বিভিন্ন জিনিসপত্র বিক্রি করে চাহিদা মেটাতেন। তবে এখন তাদের বিক্রি করার মতো আর কিছুই অবশিষ্ট নেই। তাই বাধ্য হয়ে এখন বেতনের দাবিতে রাস্তায় নামতে হয়েছে শিক্ষক সমাজকে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com