ফ্রান্সেও শনাক্ত নতুন প্রজাতির করোনাভাইরাস

ফ্রান্সেও শনাক্ত নতুন প্রজাতির করোনাভাইরাস

ফ্রান্সেও শনাক্ত হলো নতুন প্রজাতির করোনাভাইরাস। শুক্রবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। যুক্তরাজ্যে নতুন ভাইরাসের যে জাত শনাক্ত হয়েছে সেটি লন্ডন সফর করা ফরাসি এক ব্যক্তির শরীরে ধরা পড়েছে। ব্রিটেনে এটি শনাক্ত হওয়ার পরই সবার আগে দেশটির সাথে সীমান্ত বন্ধ করেছিলো ফ্রান্স। নতুন বছর উদযাপন উপলক্ষে কড়িকড়ি বাড়িয়েছে কানাডা, জাপানসহ বেশ কয়েকটি দেশ। ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের নতুন প্রজাতি শনাক্তের পরই দেশটির সাথে সবার আগে সীমান্ত বন্ধ করে দেয় প্রতিবেশী ফ্রান্স। এমনকি বিচ্ছিন্ন করা হয় বিমান যোগাযোগও। তবে এতো কিছুর পরও ঠেকানো যায়নি সংক্রমণ। শুক্রবার ফ্রান্সের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, সম্প্রতি লন্ডন ফেরত এক ব্যক্তির শরীরে ধরা পড়েছে নতুন ধরণের ভাইরাসটি। বর্তমানে স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে আছেন ওই ব্যক্তি। এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্য ছাড়াও ভাইরাসের নতুন প্রজাতিটি শনাক্ত হয়েছে, ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ডস, ফ্রান্স, নাইজেরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকাসহ বেশ কয়েকটি দেশে। সতর্কতায় এখনও বিমান যোগাযোগ বন্ধ রেখেছে এশিয়া, ইউরোপ-আমেরিকার বহু দেশ। নতুন বছরের উৎসবে কোভিড নাইনটিন সংক্রমণ আরও ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে এমন শঙ্কায়, কড়াকড়ি বাড়িয়েছে জাপান ও ইতালিসহ অনেক দেশ। কানাডায় বিধি নিষেধ আরোপ থাকবে ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত। জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা বলেন, সবার স্বার্থে নতুন বছর উদযাপন থেকে আমাদের বিরত থাকতে হবে। কয়েকটি দিন, সবাইকে ঘরে থাকার অনুরোধ করছি। জানি বার, রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ীরা ক্ষতির মুখে পড়বেন। তবুও ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে এই ছাড় দিতেই হবে। এরই মধ্যে, যুক্তরাজ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আগতদের দেশে ঢুকতে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com