ফেনীতে ব্যবসায়ীর ১৫ লাখ টাকা ছিনতাই, অভিযানে আটক ৭

ফেনীতে ব্যবসায়ীর ১৫ লাখ টাকা ছিনতাই, অভিযানে আটক ৭

ফেনী প্রতিনিধি:
ফেনীতে এক ব্যবসায়ীর ১৪ লাখ ৮২ হাজার ২০০ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত ৭ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় ছিনতাইকারীদের নিকট থেকে ৪ লাখ ২৮ হাজার ৫০০ টাকা, ছিনতাইয়ের টাকায় কেনা তিনটি নতুন মুঠোফোন সেট ও ছিনতাইয়ের সময় ব্যবহৃত ২টি দা উদ্ধার করে পুলিশ।
আজ শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুর ১২টায় ফেনীর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মো. বদরুল আলম মোল্লা এ তথ্য জানান।
গ্রেফতার সাতজন ছিনতাইকারী হলেন- ফেনীর দাগনভূঁঞার চন্দ্রপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন বাবু (২০), ফেনী সদরের সুন্দুরপুরের ওমর ফারুক আরমান (২০), পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার সুমন সিকদার (২১), গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের মো. সাকিব খান (২০), ফেনীর দাগনভূঁঞার তুলাতলীর নূরুল ইসলাম রনি (২১), লক্ষীপুরের চন্দ্রগঞ্জের মো. শিপন (২২) ও পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার (বর্তমানে ছিনতাইকৃত টাকার মালিকের বাসার ভাড়াটিয়া) আল আমিন (২৫)।
মো. বদরুল আলম মোল্লা জানান, গত ৬ জানুয়ারি রাত ৮টার দিকে ফেনী শহরের তাকিয়া রোডের সম্রাট মেজর ফ্লাওয়ার মিলের বিক্রয় প্রতিনিধি জসিম উদ্দিন চৌধুরীসহ দুইজন কর্মচারী বিভিন্ন দোকান থেকে বকেয়া টাকা সংগ্রহ করে ফ্লাওয়ার মিলের অফিসে জমা দেওয়ার জন্য যাওয়ার সময় দুর্বৃত্তরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের গতিরোধ করে। এসময় তাদের এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে ১৪ লাখ ৮২ হাজার ২০০ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়।
এ ঘটনায় মামলা হলে ফেনী থানা পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও পুলিশের অপর একটি বিশেষ টিম মাঠে নামে। ভিডিও ফুটেজ এবং তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রথমে ঢাকা থেকে দুইজন এবং তাদের দেওয়া তথ্য অনুয়ায়ী কক্সবাজার, নোয়াখালী, লক্ষীপুর ও ফেনী থেকে ৫ জনসহ মোট সাত জনকেই গ্রেফতার করা হয়। ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িতরা বিভিন্ন জেলার লোক হলেও সবাই একটি বিশেষ ছিনতাই চক্রের সদস্য ও পরস্পর বন্ধু। তারা ফেনী শহরের রামপুর এলাকায় বসবাস করেন।
বদরুল আলম মোল্লা আরও জানান, গ্রেফতার সাতজনের মধ্যে দেলোয়ার ও আরমান পেশাদার ছিনতাইকারী। তাদের সবার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তারা গত কিছুদিন থেকে সম্রাট মেজর ফ্লাওয়ার মিলের আমদানির টাকা ছিনতাইয়ের জন্য পরিকল্পনা করে আসছিল। দলের সদস্য আল আমিন সম্রাট মেজর ফ্লাওয়ার মিলের মালিকের বাসার ভাড়াটিয়া ও ছিনতাই দলের তথ্যদাতা। ৬ জানুয়ারি বেশি টাকা সংগ্রহ করে মিল কর্মচারীরা অফিসে যাচ্ছে ওই সংবাদ আল আমিন তার বন্ধুদের জানায়। সেই তথ্য অনুযায়ী কর্মচারীদের পথরোধ ও পিটিয়ে কুপিয়ে আহত করে টাকাগুলি ছিনতাই করা হয়। তারা সবাই সম্রাট মিলের টাকা ছিনতাইয়ের কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন।
জেডআই/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com