ফেনীতে চেয়ারম্যানের পিটুনিতে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ

ফেনীতে চেয়ারম্যানের পিটুনিতে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ

নিহত শাহীনের লাশ পরশুরাম থানা প্রাঙ্গনে রাখা হয়েছে।

স্টাফ কোরেসপন্ডেন্ট:
ফেনীর পরশুরাম মির্জানগরের ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টোর পিটুনিতে শাহীন চৌধুরী নামে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ চার জনকে আটক করেছে। তাৎক্ষণিকভাবে আটককৃতদের নাম জানা যায়নি। নিহত শাহীনের লাশ পরশুরাম থানার সামনে রাখা হয়েছে।
নিহত শাহীন চৌধুরীর স্ত্রী ফিরোজা বেগম জানান, তার স্বামী শাহীন স্থানীয় বাবুল কনট্রাকটরের দোকানে চাকরি করতেন। সেখান থেকে ৭ লাখ টাকার হার্ডওয়্যার জাতীয় মালামাল বাকিতে কেনেন হাসেম নামে এক ব্যক্তি। হাসেম চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টোর একজন সহযোগী। বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় পরশুরাম উত্তর বাজারে হাসেমের সাথে দেখা হলে তার কাছে টাকা চাইলে হাসেম ভুট্টো চেয়ারম্যানকে ডেকে আনে। এ সময় হাসেম, নুরুজ্জামান ভুট্টু ও তাদের সহযোগীরা এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে শাহীনকে গুরুতর আহত করে। ভুট্টো চেয়ারম্যান নিজ হাতে পিটিয়ে শাহীনকে আহত করে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।পরে, আহত শাহীনকে সেখান থেকে উদ্ধার করে পরশুরাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
পরশুরাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. খালেদ হোসেন জানান, লাশ এই মুহূর্তে থানায় রয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সাথে কারা জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।উল্লেখ্য, চেয়ারম্যান নুরুজ্জমান ভুট্টোর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করতে চাইলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

/এসএইচ

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com