প্রথমবারের মতো এক রুশ সেনার বিচার শুরু করলো ইউক্রেন

প্রথমবারের মতো এক রুশ সেনার বিচার শুরু করলো ইউক্রেন

ছবি: সংগৃহীত

ইউক্রেনে মস্কোর আগ্রাসনের শুরুর পর থেকে এই প্রথম এক রুশ সৈন্যের যুদ্ধাপরাধের বিচার কিয়েভে শুরু হয়েছে। ইউক্রেনের রাজধানীতে একটি ছোট আদালত কক্ষের ভিতর ভাদিম শিশিমারিন নামের অভিযুক্ত ওই রাশিয়ান সার্জেন্টকে একটি ছোট কাঁচের খাঁচায় রাখা হয়েছিল। শুক্রবার (১৩ মে) আল জাজিরার খবরে জানানো হয় এ তথ্য।
ভাদিম শিশিমারিন নামের ২১ বছর বয়সী অভিযুক্ত ওই রুশ সেনা রাশিয়ান ট্যাঙ্ক ইউনিটের সদস্য। ইউক্রেনের সেনারা তাকে বন্দী করে। তার বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রথম সপ্তাহে ৬২ বছর বয়সী একজন বেসামরিক নাগরিককে গুলি করে হত্যা করার অভিযোগ রয়েছে।
গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করে রুশ বাহিনী। যুদ্ধের শুরু থেকেই কিয়েভ সরকার বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে নৃশংসতা ও বর্বরতার জন্য রাশিয়াকে অভিযুক্ত করেছে। কিয়েভ জানায়, রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে তারা এ পর্যন্ত ১০ হাজারেরও বেশি সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধ চিহ্নিত করেছে। তবে বেসামরিক নাগরিকদের টার্গেট করা বা যুদ্ধাপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাশিয়া।
আরও পড়ুন: ৪ হাজার ৪০০ কোটিতে টুইটার কেনার চুক্তি স্থগিত করলেন মাস্ক
জেডআই/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com