প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ | Ekushey Bangla | একুশে বাংলা

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

গত ৮ আগস্ট “জাগো কুমিল্লা” নামক অনলাইন পোটালে “বুড়িচংয়ে সন্তানের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এক বৃদ্ধা মায়ের মানবেতর জীবনযাপন” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয় এবং উক্ত সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। উক্ত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে এবং সংবাদটির বিষয়বস্তুতে যে সকল তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করা হয়েছে-তা মিথ্যা ও বানোয়াট এবং কাল্পনিক।
প্রকৃত পক্ষে আমার ছোট ভাই রবিউল আমার মাকে ভুল বুঝিয়ে মিথ্যা তথ্য সম্বলিত একটি অভিযোগ বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইমরুল হাসানের নিকট দাখিল করে এবং জাগো কুমিল্লা নামক পোটালকে মিথ্যা তথ্য প্রদান করে উক্ত সংবাদটি প্রকাশ করায়। আমি নিজ বাড়ীতে একটি মহিলা হাফিজিয়া মাদ্রাস স্থাপনের পর থেকে আমার ছোট ভাই রবিউল বিভিন্ন ভাবে মাদ্রাসার কার্যক্রম বন্ধ করার পায়তারা করে আসছে এবং বিভিন্ন সময় বিভিন্œ অভিযোগ এনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও অনলাইন পোটালে সংবাদ পরিবেশন করে আমাকে হেয়পতিপন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে আমার বড় ভাই প্রভাষক মোঃ কবির হোসেনকেও হেয়পতিপন্ন করার উদ্দেশে উক্ত সংবাদে সম্পৃক্ত করেছে। আমরা প্রত্যেক ভাই প্রতিমাসে আমাদের মায়ের বরণ-পোষণ যাবতীয় খরচ হারাহারি মতো বহন করি। দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে কোন ভাই একা আমার মায়ের খরচ বহন করে না। আমরা প্রত্যেক ভাই সম্মিলিত ভাবে-এই খরচ বহন করে আসছি। এছাড়া আমার বাবা অসুস্থ থাকা অবস্থা থেকে মৃত্যু পর্যন্ত প্রায় ২০ বছর ধরে আমার বড় ভাই প্রভাষক মোঃ কবির হোসেন সংসারের যাবতীয় খরচ বহন করেছে; এমনকি রবিউলেরসহ আমরা ৬ ভাই-বোনের পড়া লেখার ও বোনদের বিবাহ সাদীর খরচ নিজ দায়িত্বে করেছেন। আমি আমার মাদ্রাসার প্রয়োজনে আমার নিজস্ব সম্পত্তিতে মাটি ভরাট করি। কিন্ত কোন রাস্তা বন্ধ করি নি। রবিউলের ঘর থেকে আমার মা বা রবিউল বের হতে কোন প্রকার বাঁধা প্রদান করি নি এবং মাটি ভরাট করার ফলে তাদের কোন ক্ষতি সাধন হয়নি। মাদ্রাসার প্রয়োজনে ঘর নির্মানের জন্য বিদ্যুতের লাইনটি অন্যদিক দিয়ে সরিয়ে নেওয়ার জন্য রবিউলকে বিগত ৫ মাস ধরে অনুরোধ করার পরও সে কোন প্রকার কর্ণপাত করে নি। আমার জানামতে আমার বিরুদ্ধে কোন থানায় অভিযোগ নেই। এছাড়া আমার ছোট ভাই রবিউল গত ২৬ অক্টোবর ২০১৮ইং তারিখ পপুলার নিউজ বিডি ডট কম পোটালে অবশেষে আবারো বিয়ে করলেন বুড়িচংয়ের ফয়েজ! এলাকায় তোলপাড়! শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। উক্ত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। উক্ত সংবাদটি প্রতিহিংস্বামুলক, কাল্পনিক,বানোয়াট ও মিথ্যা। উক্ত মিথ্যা সংবাদটি পরবর্তীতে Rabiul bd নামক ফেইসবুক আইডিতে শেয়ার করে এবং বিগত ২১/০৯/২০১৬ ইং তারিখে পপুলার নিউজ বিডি ডট কম ও সময়ের কন্ঠসর ডট কমের অনলাই ভার্সন বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোটালে আমার ছোট ভাই রবিউল হোসেন ষড়যন্ত্র মুলকভাবে একটি মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেছিল। উক্ত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর সংশ্লিষ্ট নিউজ পোটালের কর্তপক্ষ নিউজটিকে অনলাইন থেকে সড়িয়ে ফেলে। আমি উক্ত মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র নিন্দ ও প্রতিবাদ জানাই।

আলহাজ¦ ফয়েজ আহম্মদ
প্রতিষ্ঠাতা
হযরত আমেনা (আঃ) মহিলা হিফজ খানা
বুড়িচং,কুমিল্লা।
০১৭৫৩-১০৬৬৯৮

ফেসবুক মতামত

সর্বশেষ খবর

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com