নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ও ইসি আইন চায় খেলাফত মজলিস

নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ও ইসি আইন চায় খেলাফত মজলিস

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে আইনসহ নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার চায় খেলাফত মজলিস। সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ কথা জানায় দলটি। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে সংলাপে যোগ দিয়ে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ও ইসি গঠনে আইন প্রণয়নসহ ৫ দফা দাবি তুলেছে তারা।
সংলাপে তারা ইসি গঠনে সুনির্দিস্ট আইন প্রণয়নের দাবি করেন। নিরপেক্ষ সরকার ছাড়াও তারা নির্বাচন কমিশনে আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি বা সাবেক সিনিয়র সচিবকে সিইসি নিয়োগ দেয়ার দাবি করেন। এছাড়া নারী ও আলেমসহ চারজন কমিশনার নিযুক্ত করা, কেন্দ্রীয় নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষমতা ইসিকে দেয়া, কমিশনকে শক্তিশালী করা, সামরিক বাহিনী মোতায়েন ও সংসদ ভেঙে দিয়ে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনের দাবি তাদের। প্রসঙ্গত, খেলাফত মজলিস ইতিপূর্বে বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিশ দলীয় মহাজোটের অধীনে ছিল।
খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমেদ আব্দুল কাদেরের নেতৃত্বে দলের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে সংলাপে ছিলেন দলটির জ্যেষ্ঠ নায়েবে আমির মাওলানা যোবায়ের আহমদ চৌধুরী, নায়েবে আমির মাওলানা এসএম সাখাওয়াত হোসাইন, নায়েবে আমির মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর হোসাইন, মুহাম্মদ মুনতাসির আলী, ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সল ও অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুল জলিল।
উল্লেখ্য, এর আগে ইসি গঠনে রাষ্ট্রপতির ডাকা সংলাপে যোগদান শেষে তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী বলেছেন, নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য এখনও পর্যন্ত আইন না হওয়া দুঃখজনক। প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে।
/এডব্লিউ

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com