নারীদের পোশাক নিয়ে ‘নিয়ম বেঁধে’ দেয় ফেসবুক!

নারীদের পোশাক নিয়ে ‘নিয়ম বেঁধে’ দেয় ফেসবুক!
পুরুষ কর্মীদের ‘মনোযোগ’ যাতে ব্যাহত না হয় সেজন্য মহিলা কর্মীদের ‘ঠিকঠাক’ পোশাক পরার নির্দেশ দেওয়া হয় ফেসবুকের সদর দপ্তরে! সদ্য প্রকাশিত একটি বইয়ে এমনই দাবি করেছেন ফেসবুকের প্রাক্তন কর্মী আন্তোনিও গার্সিয়া মার্তিনেথ।
প্রায় দু’বছর আগে চাকরি চলে যায় আন্তোনিও’র। তারপর থেকেই সিলিকন ভ্যালির ‘দ্বিচারিতা’ নিয়ে একটি বই লেখার পরিকল্পনা করেন তিনি। ‘কেওস মাঙ্কিজ: অবসিন ফরচুন অ্যান্ড র‌্যান্ডম ফেলিওর ইন সিলিকন ভ্যালি’ নামে বইটি সেই পরিকল্পনারই ফল।
আন্তোনিও’র কথায়, ‘নারী স্বাধীনতা নিয়ে প্রায়শই সরব হয় ফেসবুক। আর তাদের দপ্তরেই মেয়েদের পোশাকে নিষেধাজ্ঞা বহাল করা হয়! পুরুষ সহকর্মীদের মনোযোগে বিঘ্ন ঘটানোর জন্য দায়ী করা হয় মহিলা কর্মীদের পোশাককে!’
বইয়ে আন্তোনিও লিখেছেন, ‘একদিন হঠাৎ ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেন, সহকর্মীদের কাজে বিঘ্ন ঘটায়, এমন কোনও পোশাক পরা যাবে না।’ পরে মহিলা কর্মীদের আলাদা করে ডেকে পাঠিয়ে এ বিষয়ে সবিস্তারে জানানো হয় বলে আন্তোনিও’র দাবি।
তবে আন্তোনিও’র অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। তাদের কথায়, ‘আমরা বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যে বিশ্বাসী। আমরা কখনওই লিঙ্গ, জাতি, বয়স নিয়ে ভেদাভেদ করি না।’
ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গের মেজাজ হারানোর কথাও বইয়ে বারবার লিখেছেন আন্তোনিও। খুব ছোটখাটো বিষয়ে নাকি রেগে যান মার্ক!
আন্তোনিও বলেন, ‘একবার ফেসবুকের একটি নতুন ফিচার ফাঁস হয়ে যায়। পরদিনই গোটা ইউনিটকে পদত্যাগ করার জন্য ইমেল পাঠান জাকারবার্গ।’
  • শেয়ার করুন

ফেসবুক মতামত

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com