নারায়ণগঞ্জে চলন্ত বাসে গৃহবধুকে ধর্ষণ, চালক রিমান্ডে

নারায়ণগঞ্জে চলন্ত বাসে গৃহবধুকে ধর্ষণ, চালক রিমান্ডে

সিনিয়র করেসপনডেন্ট, নারায়ণগঞ্জ:
নারায়ণগঞ্জে চলন্ত বাসে উচ্চস্বরে গান বাজিয়ে গৃহবধুকে ধর্ষণের মামলায় চালক নুরুল হকের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।
সোমবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত চীফ জুুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বদিউজ্জামান এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এ ঘটনায় বাকি দুই আসামির বয়স কম হওয়ার কারণে তাদের কিশোর সংশোধন কেন্দ্র গাজীপুরে প্রেরণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর আসাদুজ্জামান। তিনি জানান, বন্দর থানায় সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় তিন আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তামিনিবাসের চালক নুরুল হককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন করেন এবং বাদী দুই আসামির বয়স যাচাই-বাছাই করার জন্য নির্দেশনা চান। আদালত শুনানি শেষে চালক নুরুল হককে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বাকি দুই আসামি বাসের পরিচালক শান্ত (১৬) ও হেলপার বুলেটকে গাজীপুর কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
উল্লেখ্য, রোববার রাত ১০টার দিকে ভুক্তভোগী ওই গৃহবধু রূপগঞ্জের গাউছিয়া তুলতা যাওয়ার জন্য যাত্রাবাড়ি থেকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবহনের মিনিবাসটিতে উঠেন। বাসটি চিটাগাংরোড বাসস্ট্যাণ্ডে এলে বাসের অন্য যাত্রীরা নেমে যায়। কিন্তু বাসের চালক কাঁচপুর দিয়ে ভুলতা রুটে না ঢুকে তাকে নিয়ে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে চলতে থাকে। এ সময় হেলপার ও পরিচালক বাসের দরজা-জানালা লাগিয়ে উচ্চস্বরে গান বাজাতে থাকে। এক পর্যায়ে চলন্ত বাসের চালক নুরুল ইসলাম (২১), পরিচালক শান্ত (১৬) এবং হেলাপার বুলেট সংঘবদ্ধভাবে ওই নারীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে।
পরে, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধু কৌশলে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেয়ার কথা বলে বাস থেকে নেমে পুলিশের জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল দেয়। পরে বন্দর থানা পুলিশ প্রথমে নির্যাতনের শিকার নারীকে উদ্ধার করে ও রাত তিনটার দিকে তিন ধর্ষককে গ্রেফতার করে এবং মুক্তিযুদ্ধ পরিবহনের বাসটি আটক করে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারীর স্বামী বাদি হয়ে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করেন।
জেডআই/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com