দু’গ্রুপের সংঘর্ষে সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভা পণ্ড

দু’গ্রুপের সংঘর্ষে সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভা পণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি:
২২ জানুয়ারির জনসভাকে সফল করতে জেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভা দু’গ্রুপের সংঘর্ষের কারণে পণ্ড হয়েছে। সদস্য সচিবের ভাইরাল হওয়া অডিও বক্তব্যের জের ধরে দু’পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ধাক্কা-ধাক্কি ও মারামারিতে শনিবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের লেকভিউ এলাকায় ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।
বিএনপির একাধিক নেতাকর্মী জানান, শহরের লেকভিউ সম্মেলন কক্ষে জেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভা চলছিল। দ্বিতীয় ধাপে বিভিন্ন জেলায় ২২ জানুয়ারির জনসভা সফল করার জন্য যুবদলের সাথে জেলা বিএনপির মতবিনিময় সভা হচ্ছিল। কিন্তু অধিকাংশ বক্তার বক্তব্যে ঘুরে-ফিরে সম্প্রতি ফাঁস হওয়া জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুল আলিম ও স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক সোহেল আহমেদ মানিকের অডিও ফোনালাপের বিষয়টি সামনে আসে। এ নিয়ে প্রস্তুতি সভায় ব্যাপক উত্তেজনা দেখা যায়। শুরু হয় ধাক্কা-ধাক্কি,মারপিট ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। মুহূর্তেই ব্যাপক ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয় লেকভিউ এলাকায়। পরে সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এ বিষয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক সোহেল আহমেদ মানিক জানান, সদস্য সচিব আব্দুল আলিম আমাদের নেতা। আমরা তাকে সেভাবেই সম্মান করি। কিছুদিন আগে তুচ্ছ একটা ঘটনায় তিনি যেভাবে আমাকে গালাগালি করলেন, সেটি ভব্যতা-সভ্যতার কোন পর্যায়ে পড়ে না। প্রস্তুতি সভায় অধিকাংশ বক্তার বক্তব্যের জের ধরে এমন ঘটনা ঘটেছে।
জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান মুকুল জানান, ভাইরাল হওয়া ফোনালাপ নিয়ে সভায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছিল। অধিকাংশ বক্তাই বলেছেন, দলের কোন নেতাকর্মী অন্যায় করলে ইনডোরে সংশোধনের চেষ্টা করতে। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুল আলিমকে ফোন দিলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
জেলা বিএনপির আহবায়ক এড. সৈয়দ ইফতেখার আলী জানান, গণমাধ্যমে প্রকাশের মতো তেমন কিছু হয়নি। নিজেদের মধ্যে একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। পরে ঠিক হয়ে গেছে।
আরও পড়ুন- নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত
এনবি/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com