তিস্তা ব্যারেজের সব কপাট খুলে দেয়া হয়েছে; পানি বিপদসীমার ওপরে

তিস্তা ব্যারেজের সব কপাট খুলে দেয়া হয়েছে; পানি বিপদসীমার ওপরে

তিস্তা ব্যারেজের সব কপাট খুলে দেয়া হয়েছে। ছবি: সংগৃহীত

রংপুর ব্যুরো:
ভারতের গাজলডোবা ব্যারেজের সবকটি গেট খুলে দেয়ায় উজানের পানি আছড়ে পড়েছে বাংলাদেশের তিস্তার ডালিয়া ব্যারেজ পয়েন্টে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট খুলে দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।
বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) রাত ১১টায় ডালিয়া পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৩০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। বানের পানিতে ৫১৬ কিলোমিটার তিস্তা অববাহিকার চরাঞ্চল ও নিম্নাঞ্চলের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। অন্ধকারে হঠাৎ পানিবন্দি হয়ে পড়ায় বিপাকে পড়েছেন তারা।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের উত্তরাঞ্চলীয় প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় লালমনিরহাট জেলার দোয়ানীতে অবস্থিত তিস্তা ব্যারেজ পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। এর পরপরই বাড়তে থাকে পানি প্রবাহ। রাত এগারোটার মধ্যে ৫২ দশমিক ৯০ সেন্টিমিটারে পৌঁছায় যা বিপদসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হতে থাকে।
এরপর, ব্যারেজ রক্ষায় ৪৪টি গেট খুলে দেয়া হয়েছে। এ কারণে ভাটিতে পাঁচ জেলার ১৪ উপজেলায় তিস্তা অববাহিকার নিম্নাঞ্চলে পানি উঠেছে। এর আগে মঙ্গলবার (৬ জুলাই) বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার এবং বুধবার (৭ জুলাই) ৩০ সেন্টিমিটার নিচে ছিল তিস্তা নদীর পানি।
তিস্তা অববাহিকার জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এবং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের সূত্রে জানা গেছে, ভয়াবহ রকম পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় হু হু করে তলিয়ে যাচ্ছে ভাটির অঞ্চল। এরইমাঝে পানি ঢুকে পড়েছে তিস্তা অববাহিকার ৫১৬ কিলোমিটারব্যাপী চরাঞ্চলের নিম্নাঞ্চল। এতে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com