চীনা ব্যক্তিকে অপহরণ করে হত্যা, মরদেহ বদল!

চীনা ব্যক্তিকে অপহরণ করে হত্যা, মরদেহ বদল!

ক্যান্সারে আক্রান্ত স্বজনের শেষ ইচ্ছা পূরণ করতে গিয়ে প্রাণ দিতে হয়েছে ডাউন সিনড্রোমে আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে। চীনের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ২০১৭ সালে অপহরণের পর হত্যা করা হয় তাকে। চার বছর আগের ঘটনা হলেও আদালতের রায়ের পর গত সপ্তাহে চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় এ ঘটনা।
সে বছর গুয়াংদং প্রদেশের শানোয়েই শহরে ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্যক্তিটি মারা যান। মৃত্যুর আগে তার শেষ ইচ্ছা ছিল, রীতি অনুযায়ী তার মরদেহ না পুড়িয়ে কবর দেয়া হবে। কিন্তু গুয়াংদংয়ে কবর দেয়া নিষিদ্ধ বলে পোড়ানোর জন্য বিকল্প একটি মরদেহ খুঁজতে লোক ভাড়া করে তার পরিবার। হুয়াং নামের অপরিচিত ওই ভাড়া করা লোক বিকল্প মরদেহের ব্যবস্থা করতে এই হত্যাকাণ্ড ঘটায়। রাস্তা থেকে ডাউন সিনড্রোমে আক্রান্ত ব্যক্তিকে ভুলে মদ খাইয়ে অজ্ঞান করে ফেলে সে। তারপর তার দেহ কফিনে ঢুকিয়ে রাখে। কয়েকদিন পর ১৬ হাজার ডলারের বিনিময়ে মরদেহসহ কফিনটি হস্তান্তর করা হয় ওই পরিবারের কাছে।
স্বজনের মরদেহ কবর দিয়ে পরিবারটি প্রশাসনের সামনে আরেকজনের মৃতদেহসহ কফিন পুড়িয়ে নিয়ম পালনের ভান করে। ডাউন সিনড্রোমে আক্রান্ত ব্যক্তি নিখোঁজের পর এ রহস্য উদঘাটনে প্রায় দুই বছর লেগেছে চীনা পুলিশের। হত্যাকারীকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া মরদেহের অমর্যাদার অভিযোগ আনা হয়েছে পরিবারটির বিরুদ্ধে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com