গোবিন্দগঞ্জে আদিবাসী পল্লী থেকে স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

গোবিন্দগঞ্জে আদিবাসী পল্লী থেকে স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

প্রতীকী ছবি।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চাঙ্গুরা আদিবাসী পল্লী থেকে স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্বামী অনিল মুরমুর (৪২) লাশ ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় ও স্ত্রী সুমি হেম্রনের (৩৬) লাশ খাটের ওপর থেকে উদ্ধার করা হয়।
সোমবার (৩ জানুয়ারি) বিকেলে গোবিন্দগঞ্জের কামদিয়া ইউনিয়নের চাঙ্গুরা কামারপাড়ার আদিবাসী পল্লী থেকে লাশ দু’টি উদ্ধার করা হয়। অনিল মুরমু চাঙ্গুরা কামারপাড়ার আদিবাসী পল্লীর মৃত ঝুমুর মুরমুর ছেলে। সুমি হেম্রনের বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার চতরা এলাকায়। ১৮ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। তাদের ১৫ ও ১০ বছরের দুই মেয়ে রয়েছে।
স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ জানায়, অনিলের সঙ্গে তার স্ত্রী সুমি হেম্রনের দাম্পত্যকলহ চলছিল। গতকাল রোববার রাতে মদ খাওয়া নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। সোমবার দুপুরে স্ত্রী সুমির লাশ বাড়ির ঘরের খাটের উপর এবং অনিলের লাশ ঘরে ঝুলন্ত দেখতে পায় প্রতিবেশীরা। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে বৈরাগিরহাট তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মিলন চ্যাটার্জি জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মাদক সেবনের জেরেই স্বামী অনিল তার স্ত্রীকে হত্যা করে, সে আত্মহত্যা করেছে। গতকাল রাত থেকে সোমবার সকালের মধ্যে কোনো এক সময়ে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। খবর পেয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দুটি গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।
আরও পড়ুন- গাজীপুরে জঙ্গল থেকে নারী শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার
এনবি/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com