গোপন বৈঠকের পর সিনহাকে হত্যা করা হয়: তদন্ত কর্মকর্তা

গোপন বৈঠকের পর সিনহাকে হত্যা করা হয়: তদন্ত কর্মকর্তা

টেকনাফ থানায় গোপন বৈঠকের পর সিনহাকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়। মূল পরিকল্পনাকারী বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ। অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা রাশেদ হত্যা মামলায় বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার ও এসআই লিয়াকতসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে কক্সবাজারের আদালতে আজ রোববার চার্জশিট জমা দিয়েছে র‍্যাব। চার মাসের বেশি সময় তদন্ত শেষে রোববার সকালে কক্সবাজারের আদালতে চার্জশিট জমা দেন র‍্যাবের তদন্ত কর্মকর্তা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার খাইরুল ইসলাম। তিনি জানান, তদন্তে ১৫ জনের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ মিলেছে। এর মধ্যে ১৪ জন জেলহাজতে আছেন। তারা হলেন- টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার, বাহারছড়া ক্যাম্পের বরখাস্তকৃত পরিদর্শক লিয়াকত আলী, এসআই নন্দদুলাল রক্ষিত, টেকনাফ থানার কয়েকজন পুলিশ সদস্য ছাড়াও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন-এপিবিএনের তিন সদস্য। বাকি ৩ জন স্থানীয় এবং অপরজন ওসি প্রদীপের ঘনিষ্ঠ সাগর। তিনি পলাতক আছেন। গেলো ৩১ জুলাই শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা রাশেদ। এ ঘটনায় টেকনাফ থানার সাবেক ওসিসহ নয় জনকে আসামি করে মামলা করে তার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com