কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত মুসলিম বিশ্বে

কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত মুসলিম বিশ্বে

সুইডেনে পবিত্র কোরআন শরীফ পোড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে বিভিন্ন দেশে। ইয়েমেন, ইরাকসহ মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশে রাজপথে নেমে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাজার হাজার মানুষ। সুইডেনের পতাকা পুড়িয়েও প্রতিবাদ জানান তারা। এরই মধ্যে কোরআন অবমাননার নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব, জর্ডান, কুয়েত ও তুরস্ক। খবর বিবিসির।
সোমবার (২৩ জানুয়ারি) ইয়েমেনের সানায় ইসলামিক অ্যাকশন ফ্রন্টের আহ্বানে রাজপথে নামে হাজার হাজার মানুষ। সুইডেনের সমালোচনার পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের বিরুদ্ধেও স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা। সেখানে সুইডেনের পতাকা পোড়ায় ক্ষুব্ধ জনতা।
ক্ষুব্ধ জনগণ বলছে, সুইডিশ সরকারের অনুমোদন নিয়ে দানিশ উগ্রপন্থীরা যে অপরাধ করেছে তার প্রতিবাদে আমরা জড়ো হয়েছি। পবিত্র কোরআন পুড়িয়েছে, যেটা মুসলিমদের কাছে কেবল একটি গ্রন্থ নয়, জীবন বিধানও।
এদিকে, ইরাকের বাগদাদে সুইডিশ কনস্যুলেটের সামনে বিক্ষোভে শামিল হয় হাজারো মানুষ। কোরআন পোড়ানোর ঘটনায় জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক কমিউনিটিকে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানায় বিক্ষুব্ধরা। সুইডিশ দূতাবাসকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বানও জানায় তারা। তবে মিছিল নিয়ে এগিয়ে যেতে চাইলে পুলিশি বাধার সম্মুখীন হয় বিক্ষোভকারীরা। নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে পানির বোতল ও পাথর ছুড়ে মারে তারা। এ ঘটনায় আহতও হন কয়েকজন। পরে অবশ্য ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয় তাদের। বিক্ষোভ চলছে জর্ডানেও। দেশটিতে অবস্থিত সুইডিশ দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভে শামিল হয় বহু মানুষ। সুইডেনের পতাকা পুড়িয়ে ক্ষোভ জানানো হয়।
প্রসঙ্গত, শনিবার স্টকহোমে তুর্কি দূতাবাসের সামনে কট্টর ডানপন্থী নেতা রাসমুস পালুদানের নেতৃত্বে আগুন দেয়া হয় পবিত্র কোরআন শরীফে। যা নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয় তুরস্ক-সুইডেন সম্পর্কে। আঙ্কারা বলছে, ইসলামোফোবিয়া ছড়ানোর উদ্দেশ্যেই এ ধরনের কর্মকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিন্দা জানায় বাংলাদেশ, পাকিস্তানসহ মুসলিম দেশগুলো।
এসজেড/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন

সর্বশেষ খবর

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com