কুষ্টিয়ায় দরবার শরিফ ভাঙচুর-লুটপাটের প্রতিবাদে মানববন্ধন

কুষ্টিয়ায় দরবার শরিফ ভাঙচুর-লুটপাটের প্রতিবাদে মানববন্ধন

ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী ব্যুরো:
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে কল্যাণপুর দরবার শরীফে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে ও আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন হয়েছে।
রোববার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া কালেক্টর চত্বরে অনুষ্ঠিত ও মানববন্ধনে কল্যানপুর দরবার শরীফে হামলার নেতৃত্বদানকারী হোগলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরী ও তার ভাই যুবলীগ নেতা টোকেন চৌধুরীসহ সকল সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি জানান বক্তারা।
তারা বলেন, দরবার শরীফ দখল করে এখানে একটি রিসোর্ট বানানোর চক্রান্ত করে আসছে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী। তারাই অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটিয়েছে। পরে এই ঘটনার প্রতিবাদে ও দ্রুত আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে জেলা প্রশাসক বরাবর স্বারক লিপি প্রদান করা হয়।
এর আগে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউপির কল্যাণপুর চরদিয়াড়ে অবস্থিত কথিত তছের পীরের দরবার শরিফে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। ভেড়ামারা উপজেলা থেকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে এক ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে দু’জন জখম হন। পরে থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
শনিবার দুপুরে আস্তানার খাদেম হিসেবে পরিচিত ভেড়ামারার বাসিন্দা আনিসুর রহমান সুইট বাদী হয়ে ২২ জন এজাহারনামীয়সহ অজ্ঞাত আরও ৮০-৯০ জনকে আসামি করে দৌলতপুর থানায় মামলা করেন। পুলিশ এজাহারনামীয় চার আসামি জাকির, রেজু, রাজা ও শাহীনকে গ্রেফতার করেছে।
উল্লেখ্য,গত বছরের ৬ জুন এক ভক্তকে পিটিয়ে হত্যা করার ঘটনায় কথিত পীর তছেরের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এরপর থেকে তছের পলাতক রয়েছেন।
ইউএইচ/

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com