কাটার মেশিনে দেহ বিচ্ছিন্ন হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

কাটার মেশিনে দেহ বিচ্ছিন্ন হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

সাতক্ষীরা জেলা-যুগান্তর নিজস্ব প্রতিনিধি: অবৈধ প্লাস্টিক কারখানার কাটার মেশিনে কাটা পড়ে দেহ বিচ্ছিন্ন হয়ে নিহত হয়েছেন এক শ্রমিক। নিহত শ্রমিকের নাম জুয়েল হোসেন (২৬)। সে শাকদাহ গ্রামের শেখ ওয়াজেদ আলীর ছেলে। বুধবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার শাকদাহ সাধু পলিথিন কারখানায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় আহত হয় আরও এক শ্রমিক। প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত শ্রমিক জানায়, প্রতিদিনের মতো আজও কারখানার কাটার মেশিনে পুরাতন পলিথিন কাটার কাজ করছিলো জুয়েল হোসেন। এসময় অসাবধানতা বশত জুয়েলের দেহ পলিথিনে জড়িয়ে যায়। মেশিন চালু থাকায় পলিথিনসহ জুয়েল হোসেনকে চলমান মেশিন টেনে নিলে ধরাল করাতে তার দেহ দুই ভাগ হয়ে যায়। অপর শ্রমিক এসে তাকে উদ্ধার করার চেষ্টা করলে সে আহত হয়। খবর পেয়ে সাধু পলিথিন কারখানার মালিক মিলন সাধু এসে কাটার মেশিনটি বন্ধ করে। সাতক্ষীরা পাটকেলঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী অহেদ মুর্শেদ ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পলিথিন কারখানার মালিককে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রশাসনের নজর এড়িয়ে কারখানাটি অবৈধভাবে চলছিলো বলে জানা গেছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com