করোনার কারণে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা বন্ধ ঘোষণা

করোনার কারণে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা বন্ধ ঘোষণা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:দ্বিতীয় দফা করোনা ভাইরাস সংক্রমণ দেখা দেয়ায় পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা পহেলা এপ্রিল থেকে আগামী পনের এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছেন পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়, পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ মতিউল ইসলাম চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বিকাল সাড়ে ৪টায় জেলা প্রশাসন দরবার হলে করোনা মোকাবেলা জনসাধারণদের সচেতনতা পাশাপাশি সরকার ঘোষিত আঠার দফা বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়। জেলা প্রশাসক জানান, দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দ্বিতীয় বারের মত ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশনা রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটাকে সবার ঊর্ধ্বে রাখা হয়েছে। কারণ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এখানে পর্যটক আসে। সে বিষয়টি মাথায় রেখে আমরা আপাতত পনের দিন পর্যটন এরিয়া বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
তিনি জানান,পটুয়াখালী জেলাসহ সকল জেলায় করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারের ঘোষিত সিদ্ধান্ত সমূহ কঠোরভাবে মেনে চলার অনুরোধ জানান। এদিকে জেলা প্রশাসনের এ ঘোষণার পরপরই কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে রাতে সৈকতসহ গোটা পর্যটন এশিয়ায় মাইকিং করে আগামীকাল থেকে বন্ধ ঘোষণা প্রচার চালানো শুরু করেছে।
পাশাপাশি কুয়াকাটার সকল হোটেলর মোটেল এবং খাবার দোকানও বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হচ্ছে। কলাপোড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসনাত মোহাম্মাদ শহীদুল হক জানান, এক গবেষণায় দেখা গেছে সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন পর্যটন এলাকা থেকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে সরকারের নির্দেশে জেলা প্রশাসক পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা বন্ধ ঘোষণা করেছেন।
আমরা ইতিমধ্যে কুয়াকাটার হোটেল মোটেল কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে এ নির্দেশনা কঠোরভাবে পালনের নির্দেশ দিয়েছি। বিষয়টি স্বীকার করে কুয়াকাটা হোটেল মোটেল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব শরীফ জানান, আমরা এখানকার সকল হোটের মালিকদের সরকারের এ ঘোষণা ইতিমধ্যে জানিয়ে দিয়েছি। পাশাপাশি অগ্রিম বুকিং যা ছিল সেগুলোও বাতিল করা হয়েছে।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com