অর্থ পাচারকারীদের নামের তালিকা হাইকোর্টে; আছে ব্যাংকের এমডি-পুলিশ-গাড়িচালকের নাম

অর্থ পাচারকারীদের নামের তালিকা হাইকোর্টে; আছে ব্যাংকের এমডি-পুলিশ-গাড়িচালকের নাম

বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের নামের তালিকা হাইকোর্টের কাছে জমা দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এই তালিকা চেয়ে উচ্চ আদালতের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে বিভিন্ন ধরনের তথ্য-উপাত্ত প্রতিবেদন আকারে হাইকোর্টে জমা দেয় দুদক ও রাষ্ট্রের অন্যান্য পক্ষ। এ সময় প্রতিবেদনে পুরোনো তথ্য থাকায় দুদকের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন আদালত। অর্থ পাচারকারীদের বিষয়ে পরবর্তী তথ্য জানাতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও রাষ্ট্রপক্ষকে আগামী বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।এদিকে, আদালতে দাখিল করা অর্থ পাচারকারীদের তালিকা যমুনা নিউজের কাছে এসেছে। এই তালিকায় আছেন সরকারি-বেসরকারি শীর্ষ কর্মকর্তা থেকে শুরু করে গাড়িচালকের নামও। তালিকায় আছেন- খাজা সোলেমান আনোয়ার, সাহরিশ কম্পোজিটের এমডিশহিদুল আলম সাবেক প্রধান প্রকৌশলী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডএনসিসি ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান ও তার স্ত্রী শিল্পী আক্তারিপুলিশ পরিদর্শক ফিরোজ কবীরআমানত স্টীলের এমডি হারুন আর রশীদখাজা সোলেমান আনোয়ার, সাহরিশ কম্পোজিটের এমডি শহিদুল আলম সাবেক প্রধান প্রকৌশলী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডএনসিসি ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান ও তার স্ত্রী শিল্পী আক্তারিপুলিশ পরিদর্শক ফিরোজ কবীরআমানত স্টীলের এমডি হারুন আর রশীদহুমায়ন কবীর, বাতেন মিডিয়াসিটি করপোরেশন অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আব্দুস সালামসাবেক সহকারী সচিব শাহরিয়ার মতিনসিএসএস করপোরেশনেরআবু বকর চৌধুরীইলিয়াস ব্রাদার্সের এমডি মোহাম্মদ সামশুল আলমএকুশে টিভির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, সাবেক এমডি আশরাফুল আলম ও কর্মকর্তা ফজলুর রহমান শিকদারটেলিটকের সাবেক ম্যানেজার শাহ মো জোবায়েরপ্যারাডক্স ফার্মাসিউটিকালের সাবেক এমডি রকিবুল হাসান রাজনগ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেনরাজনীতিবিদ গিয়াস উদ্দিন আল মামুনলর্ড ভিশনের চেয়ারম্যান হুসাইন মাহমুদ রাসেলএএমসি টেক্সটাইল সাবেক চেয়ারম্যান চাঁদ মিয়া ও তার স্ত্রী রাশেদা খাতুনএমদাদ হোসেনআইন কমিশনের ড্রাইভার শামছুল আলমখোরশেদ উদ্দিন ভুইয়া লতিফা ইয়াসমিন এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান এম ওয়াহিদুল হকএবি ব্যাংকের সাবেক এমডি ফজলুর রহমান ও শামীম আহমেদ চৌধুরী, হেড অফ করপোরেট আবু হেনা মোস্তফা কামাল, মোহাম্মদ মাহফুজ উল ইসলাম, মোহাম্মদ লোকমান, সাইফুল হক, সাবেক পরিচালক সৈয়দ আফজাল হাসান উদ্দিন সাবেক ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের কর্মকর্তা মঞ্জুরুল আলীম, তারিকুল ইসলাম খান, মোশতাক আহমেদ, এস মাহবুবুল আনাম, অলিনুর রহমান নুর। এর আগে, বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটসহ অর্থ পাচারকারীদের একশ নামসহ প্রতিবেদন জমা দেয়া হয় হাইকোর্টে। তদন্ত সংস্থা সিআইডি জানিয়েছে, ক্যাসিনো ব্যবসায়ী ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটসহ সাতজন হ্যাকারদের মাধ্যমে সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কায় অর্থ পাচার করেছে। শুধু সম্রাট এবং এনামুল হক আরমানই ২৩২ কোটি ৩৭ লাখ ৫৩ হাজার ৬৯১ টাকা সিঙ্গাপুরে পাচার করেছে। এর আগে, গত ২২ নভেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এক আদেশে বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের সব ধরনের তথ্য চেয়েছেন। ১৭ ডিসেম্বরের মধ্যে পররাষ্ট্র সচিব, দুদক চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি এ নির্দেশনা দেয়া হয়। এরপর হাইকোর্টের আদেশের জবাব তৈরি করতে অ্যাটর্নি জেনারেলের সঙ্গে দুবার বৈঠক করেছেন সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধিরা। সর্বশেষ গত সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে এ বিষয়ে বৈঠক হয়। বৈঠকে দুদক, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট ও এনবিআরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সুত্রঃ যমুনা টিভি

  • শেয়ার করুন
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com